অক্সফোর্ডের করোনা ভ্যাকসিনের ট্রায়াল স্থগিত

করোনা: অংশগ্রহণকারী অসুস্থ, অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের পরীক্ষা স্থগিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক


করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারে কাজ করছেন গবেষক ও বিজ্ঞানীরা। সাফল্যের দেখা পায়নি এখনও তারা। এদিকে একজন স্বেচ্ছাসেবীর দেহে করোনা ভ্যাকসিনের গুরুতর পার্শ্ব-প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়ায় বিশ্বজুড়ে ট্রায়াল বন্ধ করে দেয় ব্রিটেনের অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকা। কয়েকদিনের বিরতিতে বিশ্বজুড়ে ভ্যাকসিনের এই ট্রায়াল আবারও শুরু হলেও যুক্তরাষ্ট্রে তা স্থগিত রাখা হয়েছে। অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একাধিক সূত্র ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে এ তথ্য জানিয়েছে।

এর আগে, শনিবার ব্রিটিশ-সুইডিশ ওষুধপ্রস্তুতকারক জায়ান্ট কোম্পানি অ্যাস্ট্রাজেনেকা জানায়, একজন স্বেচ্ছাসেবীর দেহে ভ্যাকসিনের গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়ার ঘটনা পর্যালোচনা শেষে ব্রিটেনে ভ্যাকসিনের ট্রায়াল পুনরায় শুরু হয়েছে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ঘটনা মার্কিন খাদ্য এবং ওষুধ প্রশাসন ও অপর একটি সুরক্ষা প্যানেল তদন্ত না করা পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ভ্যাকসিনটির ট্রায়াল স্থগিত থাকবে বলে ইঙ্গিত দেয়া হয়েছে। অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের সঙ্গে যৌথভাবে তৈরিকৃত এই ভ্যাকসিনের ট্রায়াল গত ৬ সেপ্টেম্বর স্থগিত করা হয়।

মার্কিন খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের তদন্তে কতদিন সময় লাগতে পারে সেবিষয়টি এখনও পরিষ্কার নয়। যুক্তরাষ্ট্রের এই তদন্ত ছাড়া দেশটিতে ভ্যাকসিনটির ট্রায়ালের জন্য নতুন রোগী ও অন্যান্য প্রক্রিয়া শুরু করা সম্ভব নয় বলে রয়টার্সকে জানিয়েছে মার্কিন সূত্রগুলো।

বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা শুরু থেকেই অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনকে সবচেয়ে প্রতিশ্রুতিশীল হিসেবে বলে আসছিল। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রে ভ্যাকসিনটির ট্রায়ালে বিলম্ব হলে চূড়ান্ত ফল পাওয়ার সময়ও দীর্ঘায়িত হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

করোনা ভাইরাসের প্রকোপ থামাতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভ্যাকসিন তৈরির প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহানে উৎপত্তি হওয়া এই ভাইরাস বিশ্বজুড়ে ৯ লাখের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়েছে। বিশ্ব অর্থনীতিতে তৈরি করেছে টালমাটাল অবস্থা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment