আমরণ অনশনে ১১ শিক্ষার্থী হাসপাতালে, ১৬ সদস্যের কমিটি গঠন

বশেমুরবিপ্রবি আমরণ অনশনে ১১ শিক্ষার্থী হাসপাতালে

বশেমুরবিপ্রবি টুডে


বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) ইলেক্ট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইটিই) বিভাগকে ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের সঙ্গে একীভূতকরণের দাবিতে আমরণ অনশনরত ১১ শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। সমাধানের জন্য ১৬ সদস্য বিশিষ্ট একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত অনশন চলা অবস্থায় অসুস্থ হওয়া ১১ শিক্ষার্থীকে গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অসুস্থ ১১ শিক্ষার্থী হলেন- তৃতীয় বর্ষের সাকিবুল হাসান শান্ত, আকাশ বিশ্বাস, চতুর্থ বর্ষের নাফিসা খানম, মো. শিহাব শাহরিয়ার, হান্নান মিয়া, নাসিম, দ্বিতীয় বর্ষের মো. তানিম মিয়া, তুষার, বিপ্রনাথ, আজিজুল হাকিম সবুজ ও আব্দুর রহিম। এদের মধ্যে দুজনের অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলে তাদেরকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। শিক্ষার্থীরা শারীরিক দুর্বলতার কারণে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানান সহপাঠীরা।

এদিকে সমস্যা সমাধানের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য ও বিভাগটির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. শাহজাহান স্বাক্ষরিত একটি পত্রের মাধ্যমে ১৬ সদস্যের সমন্বয়ে গঠিত কমিটির সকলকে নিয়ে একটি সভায় অংশগ্রহণের অনুরোধ জানানো হয়েছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে, খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বশেমুরবিপ্রবির ইইই, ইটিইসহ বিভিন্ন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সভাপতিদের সমন্বয়ে গঠিত এ বিশেষজ্ঞ দলের প্রথম সভা আগামী ২৫ জানুয়ারি হবে বলে জানা যায়।

প্রসঙ্গত, দীর্ঘ ৯০ দিন অবস্থান কর্মসূচি পালন করারপরে কোন সমাধান নাপেয়ে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ইটিই বিভাগকে ইইই বিভাগের সঙ্গে একীভূতকরণের দাবিতে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment