ইবির ভাড়ায় চালিত বাসের ‘ব্রেক’ ফেল, আহত ১

ইবি টুডেঃ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বহন করা ভাড়ায় চালিত একটি বাস ব্রেক ফেল করে ১জন আহত হয়েছেন। বাসটি ক্যাম্পাস হতে ঝিনাইদহ শহরে ফেরার পথে ব্রেক ফেল করে গাছের সাথে ধাক্কা খায়।

এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন শিক্ষার্থী আহত না হলেও হেলপার গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। আজ মঙ্গলবার ঝিনাইদহ পাশ্ববর্তী গাড়াগঞ্জ এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, সকাল সাড়ে ৯টায় শিক্ষার্থীদের বহনকারী ‘ টিএস মটরস’ নামের একটি বাস ছাত্রীদের আনতে ঝিনাইদহ অভিমুখে ছেড়ে যায়। বাসটি ঝিনাইদহ পাশ্ববর্তী গাড়াগঞ্জ এলাকায় গিয়ে ব্রেক ফেল করে গাছের সাথে ধাক্কা খায়। এতে বাসের সম্মুখ অংশটি ভেঙ্গে যায়। বাসটিতে কোন শিক্ষার্থী না থাকায় হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। তবে বাসের হেলপার গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এর আগেও গত ১১ ডিসেম্বর ভাড়ায় চালিত ঝিনাইদহগামী ‘নবচিত্র’ নামের একটি বাসে আগুন লাগার ঘটনা ঘটে। এরপর শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসুবকে ভাড়ায় চালিত বাসগুলোর বিষয়ে স্ট্যাটাস দেয়।

আবু সালেহ নামের এক শিক্ষার্থী বলেছেন, ‘ভাড়ায় চালিত অধিকাংশ বাস ফিটনেসবিহীন। এসব গাড়ি অধিকাংশ সময় রাস্তায় বিকল হয়ে যায়। ফলে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার মুখে পড়তে হয় আমাদের। এ বিষয়ে প্রশাসনের পদক্ষেপ আমরা দেখতি পাইনা।’

পরিবহণ প্রশাসক অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম জানান, ‘ঘটনাটি আমি শুনেছি। ভাগ্যের বিষয় বাসে কোন শিক্ষার্থী ছিলনা। আমরা কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ জেলা বাস মালিক সমিতিকে বেশ কয়েকবার বিষয়গুলো অবহিত করেছি। এ বিষয়ে আগামীকাল আমরা আবারও তাদের সাথে বসবো।’

উল্লেখ্য, কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ রুটে শিক্ষার্থী যাতায়তের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ৩২টি বাস ভাড়ায় চালায়। এসব বাস দুই জেলার বাস মালিক সমিতির কাছ থেকে অর্থবছরের শুরুতে ভাড়া নেয় কতৃপক্ষ। এই ৩২টি বাসের পিছনে দিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যয় হয় ১ লাখ ৬৭ হাজার ৪৪০টাকা।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ