বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবামান হাতুড়ে ডাক্তারের সমান

  • আপডেট টাইম শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল, ২০২১, ১২.২৬ এএম
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবামান হাতুড়ে ডাক্তারের সমান

ইমতিয়াজ হাসান রিফাতঃ বাংলাদেশে প্রায় সকল উপজেলায় কমপক্ষে একটি করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আছে। যা স্থানীয় মানুষের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের জন্য প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। কিন্তু সেই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলোতে দেওয়া হচ্ছে না মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা। নেই কোন দক্ষ প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত নার্স।

স্থানীয় এক স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরিবারের লোক অসুস্থ হওয়ার সুবাদে গিয়ে দেখতে পাই, সিনিয়র নার্স গুলো একটি ‘ক্যানোলা’ লাগাতে হিমশিম খাচ্ছে। টয়লেটের অবস্থা নাজেহাল। খাবারের নেই কোন মান। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়োগপ্রাপ্ত ডাক্তার অফিস টাইমেও উপস্থিত নেই হাসপাতালে।যে খাবার তাঁরা রোগীদের সরবরাহ করে তাতে রোগী সুস্থ হওয়ার বদলে আরো বেশী অসুস্থ হয়ে পড়বে। কমপ্লেক্স গুলোতে নেই পর্যাপ্ত আসনসংখ্যা। যার ফলে অনেক রোগী মেঝেতে পড়ে আছে৷

বর্তমান বাজেটের প্রায় ৭.২ শতাংশ স্বাস্থ্য খাতের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে। যা থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলো উন্নয়ন কাজেও প্রাপ্য। কিন্তু হচ্ছে না কোন উন্নয়ন। যার ফলে রোগীদের এমন অপুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার সরবরাহ হচ্ছে, আসন না থাকায় মেঝেতে পড়ে থাকছে এবং অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ টয়লেট গুলো ব্যবহার করতে হচ্ছে। নেই কোন মনিটরিং। যার ফলে ডাক্তাররা অনিয়ম করে হাসপাতালে আসা-যাওয়া করছে এবং অদক্ষ নার্স নিয়োগ পাচ্ছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এমন অবস্থার জন্য অসহায় স্থানীয় মানুষের উন্নত স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার জন্য যেতে হচ্ছে জেলা,বিভাগ কিংবা রাজধানীর হাসপাতাল গুলোতে। অনেকের স্বামর্থ না থাকায় ভুগছে নানা রোগে।

বর্তমান এই মহামারী করোনার সময়েও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলোতে নেই উন্নত কোন করোনা ইউনিট। কোনটাতে থাকলেও নেই পর্যাপ্ত আসন সংখ্যা। দুর্ভোগে স্থানীয় মানুষ।

তাই, স্থানীয় পর্যায়ের মানুষের উন্নত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স গুলোর দিকে নজর দেওয়া দরকার।মনিটরিং এর মাধ্যমে দক্ষ নার্স ও ডাক্তারদের ঠিক সময়ে হাসপাতালে উপস্থিতি আবশ্যক করা উচিত। উন্নয়নের মাধ্যমে আসন সংখ্যা বৃদ্ধি ও পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার সরবরাহ করে স্থানীয় পর্যায়ের অসহায় মানুষের দুভোর্গ হ্রাস করবেন বলে অভিলাষ পোষণ করছি!

লেখকঃ শিক্ষার্থী, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিক বিভাগ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ।

 

 

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today