করতোয়া নদীতে ভাসছে টাকা, কুড়াতে ঝাঁপিয়ে পড়ছে জনতা

সারাদেশ টুডেঃ করতোয়া নদীতে টাকা ভেসে যাওয়ার এমন খবরে রীতিমতো বগুড়ায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। সোমবার রাতে শত শত উৎসুক মানুষ নদী তীরে ভিড় করেছে। নদীতে ঝাঁপ দিয়ে কেউ কেউ কিছু টাকা সংগ্রহও করেছে।

সোমবার (১৪ অক্টোবর) রাত ১১টা পর্যন্ত বিপুল সংখ্যক জনতা শহরে করতোয়া রেল সেতু ও আশপাশে ভিড় জমান। এমন ঘটনায় পুরো শহরে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। কেউ বলছেন, কোনো কালো টাকার মালিক নদীতে টাকা ভাসিয়ে দিয়েছে। আবার কেউ বলছেন, লক্ষ্মীপূজা উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীরা নদীতে টাকা ফেলেছেন। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে জুয়াড়িরা নদীতে টাকা ফেলে পালিয়েছে।

তবে পুলিশ বলছে ভিন্ন কথা, কোনো ব্যক্তির কাছ থেকে ২-৩শ’ টাকা নদীতে পড়ে গেছে। আর সে টাকা নিয়েই হৈ চৈ শুরু হয়।

সম্প্রতি কিছুদিন আগে বগুড়ায় বাংলাদেশ ব্যাংকের পার্চিং করা টাকা জনসম্মুক্ষে ফেলায় হুলুস্থুল কাণ্ড বাধে। ঠিক তেমনি করতোয়া নদীতে টাকা ভেসে যাচ্ছে এমন ঘটনায় সেখানে গিয়ে দেখা গেছে মানুষের উপচেপড়া ভিড়।

সোমবার রাত ৯টার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করতোয়া নদীতে টাকা ভাসার খবর ভাইরাল হয়। খবরটি প্রচার হলে কৌতূহলী মানুষরা ঘটনাস্থলে ছুটে যান। অনেকে সাংবাদিকদের কাছে প্রকৃত ঘটনা জানতে চেষ্টা করেন।

পরে রাত ১০টার দিকে শহরের করতোয়া নদীর রেলসেতু ও ফতেহ আলী সেতুর মাঝামাঝি এলাকায় বিপুল সংখ্যক জনগণকে ভিড় করতে দেখা যায়। অনেকে টাকার জন্য নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়েন। তবে নদী থেকে কত টাকা পাওয়া গেছে তার সঠিক তথ্য জানা যায়নি।

এ সময় কাইলা নামে এক যুবকের হাতে কিছু টাকা দেখা গেছে। তার সঙ্গে কথা বললে তিনি বলেন, ব্রিজের নীচ দিয়ে টাকা ভেসে যেতে দেখে পানিতে নেমে কিছু টাকা উদ্ধার করেছি। যার পরিমাণ প্রায় ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা। কাইলার হাতে ১০ টাকা ও ১০০ টাকার কিছু নোটও দেখা গেছে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, চেলোপাড়া এলাকায় প্রায় ২০০ ব্যক্তি পকেটমারের সঙ্গে জড়িত। রাতে নদীর ধারে জুয়া খেলা নিয়ে নিজেদের মধ্যে কোনো ঝামেলা হয়ে থাকতে পারে। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে টাকাগুলো কেউ পানিতে ফেলে দিতে পারে। আর এ ঘটনায় টাকা ভেসে যাচ্ছে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছে।

রাত ১১টার দিকে বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান জানান, “সন্ধ্যার পর ওই এলাকায় পুলিশ অভিযান চালিয়েছে। এ সময় রেল সেতুর ওপর দিয়ে দৌড়ে পালানোর সময় বা কোনো পথচারীর কাছ থেকে অসাবধানতাবশত টাকা নদীতে পড়তে পারে। নদীতে ৩শ’ টাকার মতো পাওয়া গেছে। নদীতে টাকা ভাসার খবরটি নিছক গুজব।”

দ্য ক্যাম্পাস টুডে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment