বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:২১ অপরাহ্ন

‘গণস্বাস্থ্য কাউকে ঘুষ দেবে না, প্রয়োজনে লড়াই করে যাবো’: ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

  • আপডেট টাইম রবিবার, ২৬ এপ্রিল, ২০২০, ৮.৩০ পিএম

সুপর্ণা রহমান, গবি প্রতিনিধিঃ গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের উদ্ভাবিত করোনাভাইরাস পরীক্ষার কিট ‘জিআর কোভিড-১৯ ডট ব্লট’ গ্রহণে অনিহা দেখিয়েছে বাংলাদেশ সরকারের ঔষুধ প্রশাসন ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

আজ রবিবার বিকেল ৪টায় রাজধানীর ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

বিজ্ঞাপন

সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভাইস প্রিন্সিপাল ডা. মুহিব উল্লাহ খন্দকার, গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের প্রধান এবং কিট উদ্ভাবক দলের প্রধান ড. বিজন কুমার শীল, নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের প্রধান ও কিট উদ্ভাবন দলের সহকারী ডা. ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, গণস্বাস্থ্য উদ্ভাবিত করোনা টেস্টিং কিট পরীক্ষার জন্য জমা নেয়নি ঔষধ প্রশাসন অধিদফতর। এখানে জনগণের স্বার্থের চেয়ে ব্যবসায়িক স্বার্থ বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন

ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের কার্যালয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের করোনা কিটের উদ্ভাবক ড. বিজন কুমার শীলসহ তিনজন এটি জমা দিতে যান। তবে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতর তা গ্রহণ করেনি। এমনকি গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের তিনজনের একজনকে ওষুধ প্রশাসনের কার্যালয়ে প্রবেশও করতে দেয়া হয়নি।

‘কর্তৃপক্ষ জমা নেবেন না। তাই আমরা গিয়েছিলাম, তারা জমা নেন নাই। বলে যে সিআরও আনেন, ভেরিফিকেশন করে আনেন সিআরও থেকে। সিআরও হলো চুক্তিভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান। ওখানে পয়সা দিতে হবে। কত খরচ লাগবে, তা উনারা (সিআরও) বাজেট দেবেন।’

বিজ্ঞাপন

জাফরুল্লাহ চৌধুরী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আপনাদের বুঝতে হবে, কিভাবে তারা ব্যবসায়িক স্বার্থকে রক্ষা করছেন। গত ৪৮ বছরে গণস্বাস্থ্য কাউকে ঘুষ দেয়নি, দেবে না। গণস্বাস্থ্যের উদ্ভাবিত কিট (ব্যবহারযোগ্য হয়ে) আসুক আর না আসুক, কাউকে ঘুষ দেব না। কিন্তু লড়াই করে যাব।

বিজ্ঞাপন

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today