জনগণের হৃদয়ে দক্ষ সংগঠক হিসেবে জায়গা করে নিয়েছেন সাংসদ শিবলী সাদিক

জনগণের হৃদয়ে দক্ষ সংগঠক হিসেবে জায়গা করে নিয়েছেন সাংসদ শিবলী সাদিক

অলিউর রহমান মেরাজ

করোনা মহামারী সময় দেশের জনগণের পাশে যেভাবে দাঁড়িয়েছেন এবং দক্ষতার সাথে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সকল সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড সঠিকভাবে ভাবে সফলতার সাথে পরিচালনা করে চলেছেন তার মধ্যে অন্যতম দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের অন্যতম সদস্য, নবাবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, দিনাজপুর ৬ আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য জননেতা মোঃ শিবলী সাদিক এমপি ।

করোনা ভাইরাসের কারণে সারা দেশের মানুষ যখন আতঙ্কে ঠিক সেই সময় স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা গনতন্ত্রের মানস কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে হাতেগোনা কয়েকজন এমপি মাঠে কাজ করেছেন, তাদের মধ্যে অন্যতম শিবলী সাদিক এমপি।

নিজের জীবনের মায়া ত্যাগ করে ছোট্ট সন্তান এবং পরিবারকে ত্যাগ করে রাতদিন ছুটে চলেছেন দিনাজপুর ৬ আসনের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে। নিজের অর্থায়নে হাজার হাজার অসহায় মানুষের ঘরের দরজায় রাতের আঁধারে নিজে গিয়ে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন এবং সেই সাথে সাংগঠনিক সকল কর্মকান্ড দক্ষতার সাথে পরিচালনা করে চলেছেন ।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সকল জাতীয় প্রোগ্রাম সঠিকভাবে সফলতার সাথে দিনাজপুর ৬ আসনে পালন করেছেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সংগ্রাম,গৌরব ও সাফল্যের ৭১ বছর প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করেছেন।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলার সহ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকারের সকল উন্নয়নমূলক সকল কর্মকান্ডে নিজে উপস্থিত থেকে সঠিকভাবে পরিচালনা করেছেন।

তিনি উত্তর জনপদের শ্রেষ্ঠ করোনা যোদ্ধা ও দক্ষ সাংগঠনিক ব্যক্তিত্ব হিসেবে স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের একজন সৈনিক হিসেবে, সফলতার সাথে দেশবাসীর কাছে তুলে ধরতে সক্ষম হয়েছেন তিনি ।

বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ আসন দিনাজপুর ৬ আসনের মানুষের বেঁচে থাকার একমাত্র অবলম্বন কৃষি কাজ নেই কোনো ইন্ডাস্ট্রি শিল্প-কারখানা অসহায় খেটে খাওয়া মানুষেরা করোনা ভাইরাসের কারণে অসহায় দিনমজুর শ্রমজীবী মানুষেরা যখন ঘরে বসে আছেন তাদের ঘরে খাবার নেই অসহায়ের মতো পথ চেয়ে আছেন তাদের ঘরে এক মুঠো খাবার কে দিবে পৌঁছে ঠিক তখনই প্রায় ৬০ হাজার পরিবারের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছেন তিনি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *