জ্যোতিষরাজ এমপি মন্ত্রী কিংবা প্রতিমন্ত্রী!

জ্যোতিষরাজ এমপি মন্ত্রী কিংবা প্রতিমন্ত্রী!

আবদুর রব শরীফ


জ্যোতিষীর কাছে একজন প্রশ্ন করলো, বাংলাদেশে করোনায় কত জন লোক মরা যেতে পারে?

সে কোন উত্তর দিলো না ৷

আরেকজন গিয়ে জিজ্ঞেস করলো, মৃত্যুর কথা বাদ দিলাম, একটু অনুমান করে বলেন তো, কতজন আক্রান্ত হতে পারে?

এবারও জ্যোতিষী নিরুত্তর ৷

পরের জন গিয়ে প্রশ্ন করলো, মহাশয় বলুন তো, এই ভাইরাস কতদিন পর্যন্ত বাংলাদেশে অবস্থান করতে পারে?

ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে থেকে মহাশয় কোন কথাই বলছেন না ৷

তারপর নেক্সট, আচ্ছা একটু কষ্ট করে হিসেব নিকেশ কষে বলুন তো, অর্থনীতির ক্ষয়-ক্ষতি কেমন হতে পারে?

না এবারও তিনি কোন ভবিষ্যতবাণী করলেন না ৷

অতঃপর ওখান থেকে একজন কাঁধ বাঁকিয়ে উঁকি দিয়ে বললেন, আপনি তো মানুষের মুখ দেখে অতীত, বর্তমান, ভবিষ্যৎ বলে দিতে পারেন মর্মে ঘোষণা করেন, আমার মুখ দেখে বলেন তো আমি করোনা‍য় আক্রান্ত হবো কি না?

তার চাঁদ বদনের দিকে তাকিয়ে থেকে জ্যোতীষ রাজ এবারও কিছু বললেন না ৷

ভক্ত কূল এবার জ্যোতির্ময়ের এমন মলিন বদন দেখে খুবি নারাজ হয়ে যাচ্ছিলেন,
কয়েকজন বলে উঠলেন, আগেই জানতাম এসব বিদ্যা ভুয়া!জাতির এই ক্রান্তিকালে এমন নীরবতা কখনো মেনে নেওয়া যায় না৷

হঠাৎ সভার মাঝখান থেকে একজন বলে উঠলেন, আমি জ্যোতিষ রাজের ভক্ত আগেও ছিলাম! এখনো আছি! ভবিষ্যতে থাকবো ৷

করোনা ভাইরাস নিয়ে এতোগুলো প্রশ্নের জবাব যখন মহাশয় দেননি সুতরাং আমি ধরে নিয়েছি এসব ভাইরাস টাইরাস কাউকে মারতে পারবে না এমনি কি অর্থনীতি সমাজ নীতির উপর কোন প্রভাব ই পরবে না ৷ এগুলো বরং উড়ে এসে দূরে চলে যাবে।

এহেন সময় জ্যোতিষরাজ মুখ খুললেন, চারদিকে সুনশান নীরবতা… সরব কন্ঠে উপরোক্ত ভক্তকে উদ্দেশ্য করে তিনি বললেন, ‘বৎস করোনা কি করবে না করবে আমি জানিনা, তবে অদূর ভবিষ্যতে তুমি এমপি মন্ত্রী কিংবা প্রতিমন্ত্রী হবে!’

লিখেছেন: আবদুর রব শরীফ, চট্টগ্রাম

ছবি: ঢাকাপ্রতিদিন.কম

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *