রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০৫:০৩ পূর্বাহ্ন

ট্রাকচাপায় রাবি ছাত্রের মৃত্যু, ৫ ট্রাকে অগ্নিসংযোগ: মহাসড়ক অবরোধ

  • আপডেট টাইম বুধবার, ২ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ১২.২১ এএম

রাবি প্রতিনিধি: রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) নির্মাণ কাজে ব্যবহৃত ট্রাকের চাপায় পিষ্ট হয়ে এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে শহীদ হবিবুর রহমান হলের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মাহবুব হাবিব হিমেল গ্রাফিক ডিজাইন, কারুশিল্প ও শিল্পকলার ইতিহাস বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।

তিনি শহীদ শামসুজ্জোহা হলের আবাসিক ছাত্র। এছাড়া তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ড্রামা এসোসিয়েশনের (রুডা) সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটের দফতর সম্পাদক ছিলেন।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় সিরামিক বিভাগের শিক্ষার্থী রাইহান প্রামানিক (২৪) গুরুতর আহত হয়েছেন। তিনি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আবাসিক হল ও একটি একাডেমিক ভবন নির্মাণের কাজে ব্যবহৃত ট্রাকযোগে বিভিন্ন নির্মাণ সামগ্রী আনা-নেওয়া করা হচ্ছিল। মঙ্গলবার রাতে নিহত হিমেল মোটরসাইকেলযোগে ক্যাম্পাস থেকে হলে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ হবিবুর রহমান হলের সামনে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা নির্মাণ সামগ্রীবাহী একটি ট্রাক মোটরসাইকেলটিকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি মাথা পিষ্ট হয়ে মারা যান। ঘটনাস্থলে আহত অপর জনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (রামেক) ভর্তি করা হয়।

বিজ্ঞাপন

এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে ৫টি ট্রাক ভাঙচুর করে আগুন ধরিয়ে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা।
উপাচার্যের বাসভবনের সামনে শতাধিক শিক্ষার্থী অবস্থান নিয়। পরে রাত ১০টার দিকে কয়েক’শ শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে আগুন জ্বালিয়ে অবরোধ করেন।

পরে রাত ১১টার দিকে লাশ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হসপিটালে (রামেক) নেয়া হয়। এদিকে এ ঘটনার প্রতিবাদে রাত ১২ টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা পুরো ক্যাম্পাসজুড়ে বিক্ষোভ করছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. গোলাম সাব্বির সাত্তার ঘটনাস্থলে এসে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের শান্ত করার চেষ্টা করছেন।

বিজ্ঞাপন

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাবি প্রক্টর লিয়াকত আলীকে একাধিকবার ফোন করেও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এসময় ঘটনাস্থলে উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার বলেন, আমার সন্তানতূল্য ছাত্র মারা গেছে। আমি এটিকে অ্যাকসিডেন্ট বলবো না, এটি হত্যাকাণ্ড। এর সঙ্গে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। নিহত ছাত্রের পরিবারের সঙ্গেও কথা বলেছি। প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের সর্বোচ্চ ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today