মঙ্গলবার, ২৪ মে ২০২২, ১২:০১ অপরাহ্ন

দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দিলেন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য

  • আপডেট টাইম বুধবার, ৯ মার্চ, ২০২২, ৯.০৬ পিএম
দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি দিলেন নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য

আশিক আরেফীন, কবি নজরুল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি: আমরা মনে করি বিশ্ববিদ্যার চর্চা হচ্ছে বিশ্ব বিদ্যালয়ের কাজ। একইসঙ্গে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তোলাও বিশ্ববিদ্যালয়ের কাজ। বিশ্ববিদ্যালয় সুশিক্ষিত. সুদক্ষ, চরিত্রবান এবং কল্যাণকামী মানুষ তৈরি করবে। আমরা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সেই মটোকে সামনে রেখে কাজ করছি। আমরা শুধুই সার্টিফিকেট দেব না, বরং সার্টিফিকেটের পাশাপাশি তাদের দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা করবো। আমরা প্রত্যেকটা ছেলেমেয়েকে দক্ষ করে গড়ে তুলে বাজারে পাঠাতে চাই। যার অস্ত্র হবে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট, যার অস্ত্র হবে দক্ষতা বলে বক্তব্য প্রদান করেন জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. সৌমিত্র শেখর ।

বুধবার (৯ মার্চ) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঠে স্কিল ডেভেলপমেন্ট ক্লাব এর আয়োজনে ‘বিজকেস-২০২০’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনার কথা তুলে ধরে তিনি এসব কথা বলেন।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, সুদক্ষতা ছাড়া একজন মানুষ তার কাজে সফল হতে পারেন না। জ্ঞানই যদি সব চাইতে বড় হত তাহলে একটি লাইব্রেরি সবচাইতে শক্তিশালী হত। কিন্তু লাইব্রেরি একটা প্লাটর্ফম। সেখানে জ্ঞান থাকে। সেই জ্ঞানটি অর্জন করতে হয়। সেই অর্জিত জ্ঞানকে কাজে লাগাতে হয়। জ্ঞানের আধার থেকে জ্ঞান গ্রহণ করতে হবে। জ্ঞান গ্রহণ করে সেটি শুধু নিজের মধ্যে রাখলেই চলবে না, সে জ্ঞানকে কাজে লাগানোর জন্য দক্ষতা অর্জন করতে হবে।

উপাচার্য সৌমিত্র শেখর আরও বলেন, দুর্ভাগ্যবশত আমাদের সমাজে আমাদের দেশে দক্ষতা নিয়ে এখনও ঠিক সেভাবে জনসচেতনতা গড়ে ওঠেনি। আমরাও পারিবারিকভাবে এখনো দক্ষতার চাইতে আবেগের দিকটি বেশি গুরুত্ব দিয়ে থাকি। এটি দক্ষতার অগ্রগতির জন্য প্রতিবন্ধক। পেশাদারিত্ব বলে যে শব্দটি আছে সেটি বিবেচনা করার সময় আমাদের এখন এসেছে। আমাদের এখন ট্রেনে উঠতে হবে, লাস্ট কম্পার্টমেন্ট চলছে। বাংলাদেশে এখনো অনেকে বলে থাকে-আমি বেকার, কাজের ক্ষেত্র নেই। সেটি আমি বিশ্বাস করি না। বরং আমি যদি দক্ষ হই, কাজের দক্ষতা থাকে তাহলে অবশ্যই আমার চাকরি আছে, কর্ম আছে। কিন্তু অদক্ষ মানুষের কর্ম নাই এ কথাটি সত্য।

বিজ্ঞাপন

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন ট্রেজারার প্রফেসর মো. জালাল উদ্দিন, রেজিস্ট্রার কৃষিবিদ ড. মো. হুমায়ুন কবীরসহ অন্যরা। উপস্থিত ছিলেন প্রক্টর ড. উজ্জ্বল কুমার প্রধান, পরিচালক (ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা) ড. তপন কুমার সরকার, স্কিল ডেভেলপমেন্ট ক্লাবের উপদেষ্টা আলভী রিয়াসাত মালিক, চন্দন কুমার পাল, আরিফ আহমেদসহ অন্যরা।

বিজ্ঞাপন

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today