শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৫:০২ পূর্বাহ্ন

নিখোঁজ নয় ঝামেলা মেটাতে চট্টগ্রাম এসেছিলেন চবি ছাত্র আরমান

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১, ১.৪৬ পিএম
চবি প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আরমান হোসেন গতকাল (বুধবার) দুপুর ৩টা থেকে নিখোঁজ হন। রাত ৮টায় ফোন করে পরিবারকে জানান কে যেন তাকে নিয়ে আসছে। এরপর থেকে ফোন বন্ধ পাওয়া যায় আরমানের। রাত রারোটায় তাকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পাশের রাস্তা থেকে উদ্ধার করে তার কয়েকজন বন্ধু। তবে নিখোঁজ বা অপহরণ নয় পূর্বের ঝামেলা মেটাতে নিজ ইচ্ছাতেই চকরিয়া থেকে চট্টগ্রাম আসে আরমান। এমনটিই জানিয়েছেন আরমানের বাবা মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম। এর আগে ছেলের খোঁজ চেয়ে তিনি চকরিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। আরমানের বাবার দেওয়া তথ্যমতে জানা যায়, রাঙামাটির এক ছেলের সাথে পূর্বঘটিত ঝামেলা ছিল আরমানের। রাঙামাটির ছেলেটি বিভিন্নভাবে তাকে হুমকি দিয়ে আসছিল। তাই ঝামেলা মেটতে চকরিয়া থেকে চট্টগ্রামের উদ্দ্যেশে আসেন আরমান। চট্টগ্রামের বদ্দারহাট এলাকায় নামলে রাঙামাটির ঐ ছেলেসহ আরও কয়েকজন ছেলে আরমানকে ঘিরে ফেলে। এক পর্যায়ে ভয় পেয়ে তার মাকে ফোন দেয় এবং এর পরই ফোন বন্ধ করে দেয় সে । মানসিক ভাবে বিপর্যস্থ হয়ে অসুস্থ অবস্থায় তার এক বন্ধুকে ফোন করে জানালে পানি উন্নয়ন বোর্ড এর পাশে রাস্তা থেকে উদ্ধার করে তাকে চট্টগ্রাম ইন্টানেশন্যাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক ভর্তি না নিয়ে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে রিলিজ করে দেয়। এরপর তাকে বদ্দারহাটের একটি হোটেলে রাখা হয় এবং সকালে তার পরিবাররের কাছে তুলে দেওয়া হয়। আরমানের বাবা জানান, তাকে কোন আঘাত করা হয়নি।হয়তো ভয় দেখানো হয়েছে। ভয় পেয়ে সে অসুস্থ হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে চিকিৎসা নিয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে। উদ্ধারের সময় থাকা তার বন্ধুর নাম্বারে একাধিকার কল করেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

চবি প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র আরমান হোসেন গতকাল (বুধবার) দুপুর ৩টা থেকে নিখোঁজ হন। রাত ৮টায় ফোন করে পরিবারকে জানান কে যেন তাকে নিয়ে আসছে। এরপর থেকে ফোন বন্ধ পাওয়া যায় আরমানের। রাত রারোটায় তাকে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পাশের রাস্তা থেকে উদ্ধার করে তার কয়েকজন বন্ধু।

তবে নিখোঁজ বা অপহরণ নয় পূর্বের ঝামেলা মেটাতে নিজ ইচ্ছাতেই চকরিয়া থেকে চট্টগ্রাম আসে আরমান। এমনটিই জানিয়েছেন আরমানের বাবা মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম। এর আগে ছেলের খোঁজ চেয়ে তিনি চকরিয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

বিজ্ঞাপন

বশেমুরবিপ্রবি ছাত্রের ওপর স্থানীয়দের হামলা

আরমানের বাবার দেওয়া তথ্যমতে জানা যায়, রাঙামাটির এক ছেলের সাথে পূর্বঘটিত ঝামেলা ছিল আরমানের। রাঙামাটির ছেলেটি বিভিন্নভাবে তাকে হুমকি দিয়ে আসছিল। তাই ঝামেলা মেটতে চকরিয়া থেকে চট্টগ্রামের উদ্দ্যেশে আসেন আরমান।

চট্টগ্রামের বদ্দারহাট এলাকায় নামলে রাঙামাটির ঐ ছেলেসহ আরও কয়েকজন ছেলে আরমানকে ঘিরে ফেলে। এক পর্যায়ে ভয় পেয়ে তার মাকে ফোন দেয় এবং এর পরই ফোন বন্ধ করে দেয় সে । মানসিক ভাবে বিপর্যস্থ হয়ে অসুস্থ অবস্থায় তার এক বন্ধুকে ফোন করে জানালে পানি উন্নয়ন বোর্ড এর পাশে রাস্তা থেকে উদ্ধার করে তাকে চট্টগ্রাম ইন্টানেশন্যাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক ভর্তি না নিয়ে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে রিলিজ করে দেয়। এরপর তাকে বদ্দারহাটের একটি হোটেলে রাখা হয় এবং সকালে তার পরিবাররের কাছে তুলে দেওয়া হয়।

বিজ্ঞাপন

আরমানের বাবা জানান, তাকে কোন আঘাত করা হয়নি।হয়তো ভয় দেখানো হয়েছে। ভয় পেয়ে সে অসুস্থ হয়ে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে চিকিৎসা নিয়ে তাকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়েছে।

উদ্ধারের সময় থাকা তার বন্ধুর নাম্বারে একাধিকার কল করেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

বিজ্ঞাপন

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today