শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ০৫:২৯ অপরাহ্ন

পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিতে ডিনস কমিটির জরুরি সভা বসছে আগামীকাল

  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ৪ মে, ২০২১, ৯.৪৮ পিএম
পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিতে ডিনস কমিটির জরুরি সভা বসছে আগামীকাল

দ্যা ক্যাম্পাস টুডেঃ ঢাবি শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিতে জরুরি সভা বসছে আগামীকাল বুধবার (৫ মে)। ঢাবি ডিনস কমিটির এ জরুরি সভার মূল আলোচ্য বিষয় অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের বিষয়ে সিদ্ধান্তে আসা।

সভার বিষয়ে একটি সূত্রে জানা যায়, করোনা মহামারিতে শিক্ষার্থীদের অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিতেই এ সভা ডাকা হয়েছে। আগামী বৃহস্পতিবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় ডিনস কমিটির সভার সিদ্ধান্ত অনুমোদন হতে পারে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিম বলেন, ডিনস কমিটির একটি স্পেশাল সভা আছে আগামীকাল।তিনি বলেন, করোনা মহামারীর কারনে দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষার্থীরা সেশন জটে আটকে আছে । আমরাতো আর বসে থাকতে পারিনা। সেখানে আমরা কি করতে পারি সেসব নিয়ে আলোচনা হবে। আমাদের যেতেই হবে, আমাদের হাতে কোন উপায় নেই।

তিনি আরো বলেন, সামাজিক বিজ্ঞান অনষদ আগামীকাল সন্ধ্যায় জুমে একটি মিটিংয়ে বসবে। মিটিংয়ে আমরা কিভাবে অনলাইনে পরীক্ষা নেয়া যায় সেজন্য একটি ওয়ার্কশপ করবো। এক্সেস টু ইনফরমেশনের (এটুআই) একজন কনসালটেন্ট সেখানে প্রশিক্ষণ দিবেন।

সেখানে থাকবেন অধ্যাপক এবং সহযোগী অধ্যাপকরা। সেখানে আমরা প্রতি বিভাগের দুজন শিক্ষককে প্রশিক্ষণ দিতে পারলেই, বাকী শিক্ষকদের তারা প্রশিক্ষণ দিতে পারবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

করোনা মহামারীর কারণে গত বছরের ২০ মার্চ হল খালি করার ঘোষণা দেয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। গত বছরের ১৮ মার্চ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়টির সব কার্যক্রম বন্ধ আছে। এর মধ্যে অনলাইনে ক্লাস ও দুটি সেমিস্টারের মিডটার্ম পরীক্ষা হলেও বাকি আছে সব বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে বন্ধ থাকা দেশের সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শ্রেণিকক্ষে সরাসরি ক্লাস শুরু হবে আগামী ২৪ মে থেকে। তার এক সপ্তাহ আগে ১৭ মে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে।

২৪ মের আগে বিশ্ববিদ্যালয় গুলোয় কোনো পরীক্ষা হবে না। ২৩ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা পরিষদের (একাডেমিক কাউন্সিল) সভা ডেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্যও সরকারের এই সিদ্ধান্ত অনুমোদন করে বিশ্ববিদ্যালয়।

ঢাবি উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান তখন বলেছিলেন, বিশেষজ্ঞদের মতে করোনার টিকা নেওয়ার প্রথম ডোজের চার সপ্তাহ পর ইমিউনিটি তৈরি হয়। তাই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিল সরকারের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছিল ১৭ এপ্রিলের মধ্যে যাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষক-শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারীকে টিকার প্রথম ডোজের আওতায় আনা হয়।

সেটি সম্ভব হলে তারা শিক্ষার্থীদের ১৭ মে থেকে হলে উঠাতে পারবেন বলে আশা ব্যক্ত করেছিলেন। এরপর করোনা ভাইরাসের টিকা পেতে ২৪ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত নির্ধারিত ওয়েব লিংকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের নিবন্ধন করার নির্দেশনা দেয় কর্তৃপক্ষ। ৩০ হাজারেরও বেশি শিক্ষার্থী নিবন্ধন করেন টিকা নেওয়ার জন্য। কিন্তু এখন পর্যন্ত করোনার টিকা নেওয়ার ব্যাপারে কোনো তথ্য নিশ্চিত করা যায় নি।

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today