রাবিতে উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ, সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি

রাবিতে উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ, সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি

রাবি প্রতিনিধি


রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রেরের (টিএসসিসি) উপ- পরিচালক রাকিবুল হাসান রবিনের বিরুদ্ধে ওঠা ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র ফেডারেশন।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে সংগঠনটির সভাপতি আশরাফুল আলম সম্রাট, সাধারণ সম্পাদক মোহাব্বত হোসেন মিলন ও অর্থ সম্পাদক রিয়াজ হোসেনের এক যৌথ বিবৃতিতে এ দাবি করা হয়।

যৌথ বিবৃতিতে তাঁরা বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে একের পর এক ধর্ষণ ও নারী নিপীড়নের ঘটনা ঘটছে। কয়েক মাস আগে চারুকলা বিভাগের এক শিক্ষকের নামে শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। শুধু তাই নয় বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষদের নামেও এমন নিপীড়নের অভিযোগ বরাবরই জানা যায়। কিন্তু এসব ঘটনার কোনো সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার আমরা দেখি নি।

বিশ্ববিদ্যালয়ে যৌন নিপীড়ন নিরোধ নীতিমালা ও অভিযোগ সেল থাকলেও প্রায় সময় সেটি অকার্যকর ও অভিযোগ সেলের সীমিত ক্ষমতার কারণে এসব ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও অপরাধী কে বিচারের আওতায় আনতে ব্যর্থ হয়েছে। বিভিন্ন সময়ে নিপীড়নের বিচার না হবার যে সংস্কৃতির তার ফলেই নারী নিপীড়ন ও ধর্ষণের ঘটনাগুলো বৃদ্ধি পাচ্ছে।

উল্লেখ্য, প্রায় দশ বছর আগে গান শিখতে গিয়ে এক তরুণী রাকিবুল হাসান রবিনের কাছে ধর্ষণ ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হন। যার ফলে ওই তরুণীর শারীরিক ও মানসিক বিকাশ চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। লোকলজ্জা ও রবিনের ব্লাকমেইলের কারণে এতদিন তিনি কিছু বলার সাহস করে নি।

তিনি ছাড়াও আরো অনেকেই ধর্ষণের শিকার হয়েছে। কিন্তু সামজিক সমর্থন না পাওয়ার কারনে কেউ বলতে পারে নি বলে অভিযোগে উল্লেখ করেন।

পরে গত রবিবার (২৩ আগস্ট) ভুক্তভোগী ও তার পরিবার বিচারের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরাবর একটি অভিযোগ পত্র দাখিল করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *