বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন

রোদ-বৃষ্টিতেও দুই সন্তানকে বুকে নিয়েই ফুড ডেলিভারি করেন মা

  • আপডেট টাইম শনিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২২, ২.৫৯ পিএম

ক্যাম্পাস টুডে ডেস্কঃ রোদ হোক, ঝড় হোক কিংবা বৃষ্টি। খাবার ডেলিভারির কাজে তাঁর দেরি হয় না কখনও। আর এই পুরো কাজটাই তিনি করেন দুই সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে। মোটেও মুখের কথা নয় ব্যাপারটি। বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় ঘুরে ঘুরে খাবারদাবার সংগ্রহ। তারপর সে সব ঠিকানায় ঠিকানায় পৌঁছে দেওয়া।

আর তার জন্য সময় রয়েছে মাপা। একটু দেরি হলেই খারাপ রেটিং পাওয়ার ভয়। কাটা যেতে পারে বেতনও। তাই এই মারাত্মক ডেডলাইন রক্ষা করেই রাস্তার জ্যামজট পেরিয়ে প্রতিদিন এই কাজটা করে চলেন একটি নারী।

সংসার চালাতে, সন্তানদের মানুষ করতে মায়েরা অনেক কিছুই করেন। বাড়ির সমস্ত কাজ। তার পরে উপার্জনের তাগিদে রাস্তায় রাস্তায় ঘোরা। এক মুহূর্ত বিরাম পান না তিনি। তা-ও মুখের রেখায় বিরক্তি ধরা পড়েনা একফোঁটাও। হাসিমুখে ঠিক সময়ে পৌঁছে যান উদ্দিষ্ট ঠিকানায়। বুকে স্ট্র্যাপ দিয়ে বাঁধা একরত্তি মেয়েটি।

ছেলেটি বয়সে একটু বড়। খাবার ডেলিভারির কাজে পুরো সময়টাই মায়ের সঙ্গে সঙ্গে থাকে সে। মাকে ছোটখাটো সাহায্যও করতে ভোলে না খুদে। আর এ ভাবেই দিনের পর দিন রোদে ঘুরে ঘুরে এই কষ্টসাপেক্ষ কাজটি করে চলেছেন নারী।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে একটি ফুড ডেলিভারি সংস্থায় কর্মরত এই নারীর গল্প। যিনি পেশার সঙ্গে সঙ্গেই সমান দক্ষতার সঙ্গে সামলে চলেছেন নিজের মাতৃত্বের দায়িত্বও। তাঁর কথা প্রথম সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করেছিলেন সৌরভ পাঞ্জওয়ানি নামে এক ফুড ব্লগার।

তিনি জানান, যেভাবে রোদে ঘুরে ঘুরে দুটি সন্তানকে নিয়ে নিজের কাজ করে চলেন এই মহিলা, তা যথেষ্ট অনুপ্রেরণামূলক। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সৌরভের ওই ক্লিপটি।

এমনকী সেই ভিডিও দেখে যোগাযোগ করা হয় সেই ফুড ডেলিভারি সংস্থাটির তরফেও। ওই মহিলার দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছে সংস্থাটি। যা কার্যত নজিরবিহীন বলেই জানাচ্ছেন নেটিজেনরা।

শুধু মাতৃরূপে বা শক্তিরূপেই নয়। সমস্ত দিকই যে একই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে সামলাতে পারেন মেয়েরা, মায়েরা। আর সে কথাই আরও একবার প্রমাণ করে দিয়েছেন এই মহিলা। যাকে কুর্নিশ করেছে আপামর নেটবাসী। সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today