শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত ২৬ সেপ্টেম্বর!

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত ২৬ সেপ্টেম্বর!

শাফিউল কায়েস


করোনা ভাইরাসের জন্য বিশ্ব এখনও থমকে আছে। সেই সাথে জ্ঞান সৃষ্টি ও বিতরণের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিথর হয়ে আছে। অদম্য প্রাণচাঞ্চল্য থাকা স্থাপনাগুলো হয়ে পড়েছে প্রাণহীন। শিক্ষার্থীদের পদচারনায় মুখর থাকা ক্লাস রুম, করিডোরগুলোও আজ নিস্তব্ধ। চলমান এ পরিস্থিতিতে শিক্ষা জীবন নিয়ে শঙ্কিত ও উদ্বিগ্ন শিক্ষার্থীরা। করোনা পরিস্থিতিতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিয়ে নানা ধরণের ঘোষণা আসলেও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে অনলাইন ক্লাস নেয়া ছাড়া এখনো পর্যন্ত সুনির্দিষ্ট আর কোন নির্দেশনা নেই।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কবে খুলবে এ ব্যাপারে মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার মতো সীদ্ধান্ত এই মাসের শেষে। করোনা পরিস্থিতি উন্নতি হলে সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে বলে জানা গেছে।

দেশে অন্যান্য যে সেক্টর চালু কিন্তু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বন্ধ থাকার কারণ জানিয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের দ্য ক্যাম্পাস টুডেকে বলেন, অন্যান্য প্রতিষ্ঠান খোলা না হলে দেশে দুর্ভিক্ষ দেখার সম্ভাবনা আছে। অন্যান্য সকল সেক্টর খুললেও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হচ্ছে না কারণ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা কঠিন। শিশুরা স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন নয়। ফলে তাদের মাধ্যমে বাসায় বাবা-মা, বৃদ্ধা দাদা-দাদী আক্রান্ত হতে পারে। । তখন দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে যাবে। এই বিবেচনায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার মতো সীদ্ধান্ত এখনো হয়নি।

তিনি আরও বলেন, আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। এর মধ্যে আমরা দেশের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করবো এবং সেই অনুযায়ী তার এক সপ্তাহ আগে অর্থাৎ সেপ্টেম্বরের ২৬ তারিখের দিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হবে।

এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন কেন্দ্রীয়ভাবে নয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলো নেবে । তিনি বলেন, ‘তারা আলাদা চিন্তা-ভাবনা (শিক্ষা মন্ত্রণালয় স্কুল-কলেজ খোলার ব্যাপারে) করছে, কীভাবে করা যায়। কওমি মাদ্রাসা খুলে দেওয়া হয়েছে।’

প্রসঙ্গত, দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর গত ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। তবে অনলাইনে পাঠদান চলছে

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *