হাবিপ্রবিতে বিতর্ক প্রতিযোগিতায় জয়ী সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ

হাবিপ্রবি টুডে- ‘বিতর্ক আমাদের সৌন্দর্য, যুক্তিই আমাদের শক্তি’ এই মূলমন্ত্রকে সামনে রেখে ‘ডিবেটিং সোসাইটি অব এইচএসটিইউ’ এর আয়োজনে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে(হাবিপ্রবি) অনুষ্ঠিত হলো মাদক বিরোধী আন্তঃঅনুষদীয় বিতর্ক প্রতিযোগিতা ২০১৯।

‘এই সংসদ মনে করে যে, জনসচেতনতা নয় বরং আইনের যথাযথ প্রয়োগই পারে মাদক নির্মূল করতে’ বিষয়ে বুধবার(১৮ ডিসেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোরিয়াম-২ এ বিকাল ৩ টায় সামাজিক বিজ্ঞান ও মানবিক অনুষদ এবং কৃষি অনুষদের মাঝে এই বিতর্ক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

বিতর্ক প্রতিযোগিতায় সরকারী দল সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের প্রতিনিধিত্ব করেন রনি, ইমু এবং পিউ।অপরদিকে বিরোধী দল কৃষি অনুষদের প্রতিনিধিত্ব করেন আনিকা,জেরিন এবং আলামিন।

ডিবেটিং সোসাইটি অব এইচএসটিইউ এর সভাপতি জাহিদুল ইসলাম শিহাব এর সভাপতিত্বে ও অনামিকা স্যানাল এর সঞ্চালণায় প্রধান অতিধি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড.মুহাম্মদ আবুল কাসেম, প্রক্টর প্রফেসর ড.মুহাম্মদ খালেদ হোসেন, রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা.মুহাম্মদ ফজলুল হক, ট্রেজারার বিধান চন্দ্র হালদার এবং আই.আর.টি শাখার পরিচালক প্রফেসর ড.তারিকুল ইসলাম।

বিতর্ক প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ী হয় সামাজিক বিজ্ঞান ও মানবিক অনুষদ। বিজয়ী দলকে পুরস্কার বিতরণ শেষে মাদক বিরোধী এই বিতর্ক প্রতিযোগিতা আয়োজন করায় ডিবেটিং সোসাইটি অব এইচএসটিউ এর প্রশংসা করেন ভাইস চ্যান্সেলর আবুল কাসেম। তিনি বলেন, মাদক ও মাদকাসক্তি দেশ ও জাতির উন্নতির অন্তরায়, এর থেকে পরিত্রাণে যুবসমাজ তথা ছাত্রদের অগ্রনী ভূমিকা পালন করতে হবে।

প্রক্টর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ খালেদ হোসেন তার বক্তব্যে অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মেধার প্রসংশা করে বলেন, লক্ষাধিক ভর্তিচ্ছুর মদ্ধ্যে থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই হাজারের মতো শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পায়, মাদকাসক্তি যেনো তাদের মেধা কোনভাবেই ধ্বংস করে না ফেলে তাই ভর্তির ক্ষেত্রে ডোপ টেস্ট এবং প্রতি সেমিস্টার ফাইনালেও এই পদ্ধতি চালুর পরিকল্পনার কথা জানান।

উল্লেখ্য, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯টি অনুষদের ৩২টি গ্রপে মোট ২০০জন বিতার্কিক বির্তকে অংশগ্রহণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment