৬ দফা দবি না মানলে লাগাতার আন্দোলনের হুশিয়ারি রাবি শিক্ষার্থীদের

৬ দফা দবি না মানলে লাগাতার আন্দোলনের হুশিয়ারি রাবি শিক্ষার্থীদের

রাবি প্রতিনিধি

পূর্বঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিশ্ববিদ্যালয় খোলার দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা। বুধবার বেলা ১২ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান সড়ক গুলোতে বিক্ষোভ মিছিল শেষে একটি প্রতিবাদী সমাবেশ করেন তারা।

এসময় আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা ৬ দফা দাবি উপস্থাপন করেন। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন শিক্ষার্থীরা।

তাদের দাবিগুলো হলো- স্বাস্থ্যবিধি মেনে হল ও ক্যাম্পাস খুলে দেয়া, স্বাস্থ্যবিধি মেনে দ্রুত সময়ের মধ্যে বিভিন্ন বর্ষের আটকে থাকা পরীক্ষাগুলো নেয়া, সংক্ষিপ্ত সময়ে সকল বর্ষের ক্লাস ও পরীক্ষা নেয়া, সেশন জট এড়াতে কার্যকর সকল পদক্ষেপ গ্রহন করা, অবিলম্বে সকল শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মচারীদের ভ্যাক্সিনেশনের আওতায় এনে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দেয়া, শিক্ষার্থীদের জন্য ক্যাম্পাসের মধ্যে করোনা ইউনিট ও আইসোলেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা।

সমাবেশে শিক্ষার্থীরা বলেন, আজ আমাদের ক্লাসে থাকবার কথা ছিলো। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য ক্লাসের জন্য রাজপথে নামতে হয়েছে। আমরা আমাদের এই অনিশ্চিত ভবিষ্যৎ থেকে মুক্তি চাই। আমরা অবিলম্বে বিশ্ববিদ্যালয় খুলে দিয়ে শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ নিশ্চিত করতে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। এসময় দীর্ঘ সেশনজট নিরসনে দ্রুত পরীক্ষা নেয়ার পাশাপাশি আটকে থাকা পরীক্ষাগুলো নেয়ার দাবি জানান তারা।

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর লিয়াকত আলী বলেন, আমরা বিষয়টি খুবই গুরুত্বের সাথে দেখছি। ইতোমধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন পরীক্ষা নেয়ার বিষয়ে নীতিমালাও দিয়েছেন। সে অনুযায়ী আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার বিষয়ে আগামীকাল একটি সভা ডেকেছি। সেখানে সকল ডীন, বিভাগীয় প্রধানসহ প্রশাসন আলোচনার মাধ্যমে একটি সিদ্ধান্ত নিবেন। এই সার্বিক পরিস্থিতিতে কিভাবে সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষাসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো পরিচালনা করা যায়, তার একটি অভ্যন্তীন নীতিমালা তৈরী করার চেষ্টা করবে প্রশাসন।

এর আগে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের নীতিমালা এবং রাবি শিক্ষক সমিতির অনুরোধে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার বিষয়ে ইতিবাচক সাড়া দেন প্রশাসন। তারই ধারাবাহিকতায় আগামীকাল ৩ জুন সভা ডাকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ মে স্বাস্থ্য বিধি মেনে দ্রুত হল-ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে আন্দোলনের ডাক দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষার্থীরা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন তারা।

সংবাদটি শেয়ার করুন
fb-share-icon
Tweet

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *