রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও একজন নীরব মুক্তিযোদ্ধা

ড. আনন্দ কুমার সাহা বীর মুক্তিযোদ্ধা বদরুল আলম রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সম্মানিত প্রাক্তন কর্মকর্তা। জন্মগ্রহণ করেন ১৯৫৪ সালে গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানায় বেলকা ইউনিয়নে। পিতা বদিউদ্দিন আহমেদ। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নির্বাচনের (১৯৭০) সময় সুন্দরগঞ্জ থানার বেলকা ইউনিয়নে গিয়েছিলেন। বেলকা ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট ছিলেন বাবু নেপাল চন্দ্র সাহা। বঙ্গবন্ধু বদরুল সাহেবকে জিজ্ঞাসা করেছিলেন: তোমার নাম কি? উত্তরে বলেছিলেন: বদরুল আলম খোকা। বঙ্গবন্ধু প্রত্তুতরে বলেছিলেন আমার নামও খোকা। বদরুল আলম বলেছিলেন আমি রাজনীতি করবো। বঙ্গবন্ধু বলেছিলেন তুমি পড়াশুনা করো, আগে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করো, তারপর রাজনীতিতে এসো এবং এও জানালেন পরবর্তিতে…

Read More

দুবছর পর চার্জশিট, তিন বছরেও গ্রেফতার হয়নি কেউ

ওয়াসিফ রিয়াদ, রাবি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) দ্য ডেইলি স্টারের প্রতিনিধি আরাফাত রহমানের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনায় হত্যাচেষ্টার মামলার দুই বছর পর চার জনের নাম উল্লেখ করে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দাখিল করা হয়। তিন বছরেও আসামিরা গ্রেফতার না হওয়ায় ক্ষুব্ধ বাদী ও তাঁর সহকর্মীরা। পুলিশ বলছে, ঘটনা তদন্তে করে চার আসামির সম্পৃক্ততা প্রমাণিত হওয়ায় তাদের নাম উল্লেখ আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তাকে (জিআরও) অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। এখন আদালতে বিচার কাজ শুরু হবে। আদালত সূত্র বলছে, করোনা ভাইরাসের ফলে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে চাইলেই তাৎক্ষনিকভাবে কিছু করা সম্ভব হচ্ছে না। ২০১৭ সালের ১০ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান…

Read More