কুবি শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেটসহ জিনিসপত্র বাহিরে ফেলে দিল বাড়িওয়ালা

কুবি শিক্ষার্থীদের সার্টিফিকেটসহ জিনিসপত্র বাহিরে ফেলে দিল বাড়িওয়ালা

ইকবাল মুনাওয়ার, কুবি প্রতিনিধি


করোনাকালীন ছুটিতে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থীর ব্যবহার্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র, বই, সার্টিফিকেটসহ যাবতীয় মালামাল তাদের অনুপস্থিতিতে বাসার বাহিরে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন সালমানপুরের এক মেসমালিকের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, অভিযুক্ত বাড়ি মালিকের নাম জহিরউদ্দিন।জহিরউদ্দীনের বাড়ির তৃতীয় তলার দু’কক্ষ বিশিষ্ট একটি ফ্ল্যাটে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের তিনজন শিক্ষার্থী মেস ভাড়া নিয়ে থাকতেন। করোনাকালীন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটিতে সবাই নিজ বাড়িতে চলে যান। মেসমালিক জহিরউদ্দিন ঐ শিক্ষার্থীদের প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র এবং বাহিরে ফেলে দেন। এতে ঐ বাসায় অবস্থানকারী শিক্ষার্থীরা টাকা-পয়সা ও প্রয়োজনীয় বিভিন্ন জিনিসপত্র হারিয়ে ফেলেছেন বলে অভিযোগ করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত বাড়িওয়ালার মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি এ প্রতিবেদকের পরিচয় পেয়ে কল কেটে দেন।

ভুক্তভোগীদের একজন তন্ময় বিশ্বাস। তিনি লোকপ্রশাসন বিভাগের নবম ব্যাচের শিক্ষার্থী। তিনি বলেন, ‘ক্যাম্পাস হঠাৎ বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আমরা বাড়িতে চলে আসি। কিন্তু বাড়িওয়ালা আমাদের অজান্তেই আমাদের মালামাল ঘর থেকে বের করে ফেলেন। আমার ড্রয়ারে রাখা প্রায় ১০ হাজার টাকা নিয়ে আসার জন্য আমার এক বন্ধুকে পাঠাই। সে গিয়ে আমার ব্যবহৃত বাইসাইকেল ও ড্রয়ারে রাখা ১০ হাজার টাকা পায়নি। এবং আমাদের ব্যবহৃত জিনিসপত্র ঘরের বাহিরে পড়ে থাকতে দেখে।

এনিয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. কাজী মো. কামালউদ্দিন বলেন, ‘তন্ময় আমাকে ফোনে জানিয়েছে। একজন বাড়িওয়ালা কখনো ভাড়াটিয়ার অনুমতি ব্যতীত তার জিনিসপত্র সরাতে পারেননা। ঈদের ছুটির পর তন্ময় তার খোয়া যাওয়া জিনিসের তালিকসহ লিখিত অভিযোগ দিলে আমরা প্রশাসনের মাধ্যমে আইনানুগ ব্যবস্থা নিব।’

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *