মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ১০:০৯ পূর্বাহ্ন

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে আমরণ অনশনরত দুই শিক্ষার্থীর অনশন প্রত্যাহার

  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০২১, ৯.০৯ পিএম
অনশনরত দুই শিক্ষার্থী। বাঁ দিক থেকে মোবারক হোসেন নোমান ও ইমামুল ইসলাম(ফাইল ছবি)

 

 

ক্যাম্পাস টুডে ডেস্ক


বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে চলা আমরণ অনশন প্রত্যাহার করেছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী। আমরণ অনশন চলার অষ্টম দিনে এসে ঐ দুই শিক্ষার্থী অনশন প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।

আজ মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) রাত ৮টায় আমরণ অনশন প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন শিক্ষার্থীরা। এসময় তারা বলেন, কিছুক্ষণ আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এসে আমাদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের বিষয়ে মৌখিকভাবে আশ্বাস দিয়েছেন। আমরা উপাচার্যের আশ্বাসে আমাদের অনশন প্রত্যাহার করছি। এতদিনে আমাদের পাশে বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যে সমস্ত শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা এবং সাংবাদিকসহ বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীরা ছিলেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান বলেন, দুই শিক্ষার্থী দুঃখ প্রকাশ করে কিছুটা নমনীয় হয়ে চিঠি দিয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে তাদের বিষয়টি সর্বাধিক গুরুত্বসহকারে দেখা হবে। শীঘ্রই আলোচনা করে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

এসময় শিক্ষকদের বহিষ্কারের বিষয়ে সাংবাদিকদেরা প্রশ্ন করলে উপাচার্য বলেন, যেই বিষয়ে কথা বলতে এসেছি শুধু সেই বিষয়েই কথা বলতে চাই।

জানা গেছে, ২০২০ সালের ১ ও ২ জানুয়ারিতে খুবি শিক্ষার্থীদের ৫ দফা আন্দোলনের সময় দুই শিক্ষকের সঙ্গে অসদাচরণের অভিযোগে ইতিহাস ও সভ্যতা ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থী ইমামুম ইসলাম সোহানকে ২ বছর এবং বাংলা ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থী মোবারক হোসেন নোমানকে ১ বছর বহিষ্কার করা হয়। এ শাস্তি বাতিলের দাবিতে গেল ১৯ জানুয়ারি সন্ধ্যা থেকে তারা আমরণ অনশন শুরু করেন।

অনশন চলাকালে গত শনিবার (২৩ জানুয়ারি) ইমামুল অসুস্থ হয়ে পরলে তার জায়গায় জোবায়ের হোসেন অনশন শুরু করেন এবং ইমামুলকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যদিকে পরেরদিন ২৪ জানুয়ারি নোমানও অসুস্থ হয়ে পরলে তার জায়গায় মুজাহিদুল ইসলাম অনশন শুরু করেন এবং নোমানকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আজ মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) ঐ দুই শিক্ষার্থী হাসপাতাল থেকে ফিরে ক্যাম্পাসে গিয়ে পুনরায় অনশন শুরু করেন।

এদিকে ঐ আন্দোলনের সাথে সম্পৃক্ততা ও উস্কানিমূলক বক্তব্যের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. আবুল ফজলকে বরখাস্ত এবং হৈমন্তী শুক্লা কাবেরী ও শাকিলা আলমকে অপসারণের সিদ্ধান্ত নেয় প্রশাসন।

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today