ছাত্রলীগের অত্যাচারে আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ

চট্টগ্রামে আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ

আইআইইউসি টুডে


আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (আইআইইউসি) বন্ধ ঘোষণা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ। বুধবার বিকেলে জরুরী সভা আহ্বান করে বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট।

বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রাত ৯টার মধ্যে আবাসিক ছাত্রদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। হঠাৎ এ ঘোষণায় বিপাকে পড়েন আবাসিক হলে থাকা প্রায় চারশতাধিক ছাত্র। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার কর্নেল (অব.) মো. কাশেম স্বাক্ষরিত দুটি নোটিশে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত আবাসিক হল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। এছাড়াও স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শ্রেণির কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়। বিদেশি শিক্ষার্থী ব্যতীত সব ছাত্রকে রাত ৯টার মধ্যে হল ছেড়ে দিতে বলা হয় ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর নিজাম উদ্দিন জানান, এসব শিক্ষার্থীদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বাসে করে চট্টগ্রাম শহরে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে ।

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, গত সোমবার রাতে উসমান (র.) হলের ছাত্র মোহাম্মদ আদনানকে শিবির সন্দেহে মারধর করে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। পরে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায় শিক্ষকরা। কয়েক মাস আগে পরীক্ষায় ফেল করার অজুহাতে ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের এক শিক্ষককে লাঞ্ছিত করে দশ-বারোজন ছাত্র। এ সময় তারা ওই কার্যালয়ও ভাঙচুর করে।

বুধবার সকালে এসব ঘটনার প্রেক্ষিতে শিক্ষক ও সাধারণ শিক্ষার্থীরা ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরির সামনে মানববন্ধন করে। পরে দুপুর দেড়টার দিকে শিক্ষকদের স্মারকলিপি দেওয়ার সময় তাদের ওপর ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষকদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়। তারপর জরুরী সভায় গৃহীত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বিকেল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ হোসেন মোল্লা জানান, “বিশ্ববিদ্যালয়ে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।”

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment