জেএসসি পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করছে নার্সারি পড়ুয়া শিশু! ১০০ খাতা জব্দ

জেএসসি পরীক্ষার খাতা মূল্যায়ন করছে নার্সারি পড়ুয়া শিশু!

ক্যাম্পাস টুডে ডেস্ক- জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষার বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় বিষয়ের ১০০ খাতা দিনাজপুরের বিরামপুর থেকে জব্দ করা হয়েছে। জব্দকৃত খাতাগুলো বিরামপুর থানায় সংরক্ষিত রয়েছে বলে বিষটি নিশ্চিত করেছেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুর আলম।

সোমবার ২৫ নভেম্বর, বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলার আর্দশ হাইস্কুলের সামনে জিয়াউর রহমান নামের এক ব্যক্তির বাড়ি থেকে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নূর আলম ও যুব উন্নয়ন অফিসার জামিল উদ্দিন পুলিশসহ ওই খাতাগুলো জব্দ করেন।

জানা যায়, বিরামপুর পৌর শহরের আদর্শ স্কুল পাড়ার বাসিন্দা ফুলবাড়ি উপজেলার জয়নগর উচ্চ বিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের শিক্ষক সাহানুর রহমান সদ্য সমাপ্ত জেএসসি পরীক্ষার ২৫০টি খাতা মূল্যায়নের জন্য দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ড থেকে গ্রহণ করেন। কিন্তু তিনি নিজে খাতা মূল্যায়ন না করে প্রতিবেশি জিয়াউর রহমানের বাড়িতে ২৫০টি খাতা মূল্যায়নের জন্য দিয়ে যান।

এ বিষয়ে জিয়াউরের স্ত্রী দিলরুবা বলেন, ‘শিক্ষক সাহানুর রহমান ২৫০টি খাতার মধ্যে মূল্যায়ন শেষে ১৫০টি খাতা নিয়ে গেছে এবং অবশিষ্ট ১০০টি খাতা গত সোমবার নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।
এই খাতা নিয়ে যাওয়ার পর শিক্ষক সাহানুর রহমানের স্ত্রী বিরামপুর আদর্শ হাইস্কুলের শিক্ষিকা শাহনাজ বেগমের খাতাগুলোও দিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।’

তিনি আরো জানান, ‘তার জেএসসি পরীক্ষা দেওয়া পুত্র অনিক ও নার্সারি পড়ুয়া শিশু আবরার ঐসব খাতা মূল্যায়ন করছে। শিশুদের দিয়ে খাতা মূল্যায়নের ফলে সত্যিই মূল্যায়ন হচ্ছে নাকি অবমূল্যায়ন হচ্ছে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে নানা প্রশ্ন।’

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নুর আল বলেন,’ জব্দকৃত খাতাগুলো সিলগালা করে বিরামপুর থানায় পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে।’

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান বলেন, ‘জব্দকৃত খাতাগুলো দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানের সঙ্গে কথা বলে থানায় জমা রাখা হয়েছে। এই বিষয়ে বিরামপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।’

দ্য ক্যাম্পাস টুডে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment