তামিম ইকবাল: তার ব্যক্তিগত জীবন এবং ক্রিকেট ক্যারিয়ারের অজানা দিক

তামিম ইকবাল

তামিম ইকবাল কে? তামিম ইকবালের ছবি- তামিম ইকবাল হলেন একজন বাংলাদেশী ক্রিকেটার। তিনি একজন বাঁহাতি ওপেনার ব্যাটসম্যান যিনি বর্তমানে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক। তিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিনটি ফরম্যাটেই খেলেছেন এবং বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক।

তামিম ইকবাল ২০০৭ সালে তার ওয়ানডে অভিষেক করেন এবং পরের বছর তার প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলেন। তিনি ডিসেম্বর ২০১০ থেকে সেপ্টেম্বর ২০১১ পর্যন্ত জাতীয় দলের সহ-অধিনায়ক ছিলেন। ২০২১ সালের মার্চে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ওয়ানডেতে ৫০টি হাফ সেঞ্চুরি করার কীর্তি গড়েন তামিম। ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বাধিক রান করার জন্য তিনি বাংলাদেশের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান হিসাবে বিবেচিত হন।

তামিম ইকবালের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের উল্লেখযোগ্য অর্জনগুলির মধ্যে রয়েছে:

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক (টেস্ট, ওয়ানডে, এবং টি-টোয়েন্টি মিলিয়ে)
ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ সেঞ্চুরি (১০টি)
ওয়ানডে ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান (৬৮৯২)
টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান (৪৪০১)
টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান (১৭১৭)

তামিম ইকবাল বাংলাদেশের ক্রিকেটের একজন আইকনিক ব্যক্তিত্ব। তিনি তার দক্ষতা, আত্মবিশ্বাস, এবং নেতৃত্বের দক্ষতার জন্য পরিচিত। তিনি বাংলাদেশের ক্রিকেট দলের জন্য একটি মূল্যবান সম্পদ এবং তার নেতৃত্বে বাংলাদেশি ক্রিকেট আরও উচ্চতায় পৌঁছাতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।

তামিম ইকবালের স্ত্রী ?

তামিম ইকবালের স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকী। তারা ২০১৩ সালের ২৭ জুন বিয়ে করেন। তাদের একটি ছেলে এবং একটি মেয়ে রয়েছে। আয়েশা সিদ্দিকী একজন বাংলাদেশী নারী উদ্যোক্তা। তিনি একটি ফ্যাশন ব্র্যান্ডের মালিক। তিনি তামিম ইকবালের দীর্ঘদিনের বান্ধবী ছিলেন। তারা ১৫ বছর বয়সে প্রথম দেখা হয়। তামিম ইকবাল এবং আয়েশা সিদ্দিকীর বিয়ে বাংলাদেশের একটি বড় এবং জমকালো অনুষ্ঠান ছিল। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব উপস্থিত ছিলেন।

তামিম ইকবালের সেঞ্চুরী?

তামিম ইকবাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ২৫টি সেঞ্চুরি করেছেন। সব ফরম্যাট মিলিয়ে তার সেঞ্চুরিগুলো হল:

ওয়ানডে: ১৪টি
টেস্ট: ১০টি
টি-টোয়েন্টি: ১টি
তামিম ইকবাল সব ফরম্যাট মিলিয়ে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরি করা ব্যাটসম্যান।

ওয়ানডে সেঞ্চুরি:

২০০৮ সালের ২২ মার্চ, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০০৯ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
২০০৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি, পাকিস্তানের বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০০৯ সালের ১৮ জুন, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
২০১০ সালের ১৭ আগস্ট, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১১ সালের ১১ মার্চ, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
২০১১ সালের ২৪ মার্চ, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
২০১২ সালের ৮ মার্চ, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১২ সালের ২৬ মার্চ, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১৪ সালের ১৪ জুন, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
২০১৪ সালের ১৬ জুন, আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
২০১৫ সালের ১৮ সেপ্টেম্বর, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
২০১৬ সালের ১৩ মার্চ, ওমানের বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১৬ সালের ২৫ মার্চ, ওমানের বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১৭ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১৮ সালের ১৬ ডিসেম্বর, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১৯ সালের ১১ জুন, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, মিরপুর শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ মজুমদার স্টেডিয়াম, মিরপুর
টেস্ট সেঞ্চুরি:

২০০৮ সালের ৪ জানুয়ারি, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে, চট্টগ্রাম টেস্ট স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম
২০১০ সালের ১৪ অক্টোবর, পাকিস্তানের বিপক্ষে, শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, ঢাকা
২০১১ সালের ১৮ নভেম্বর, শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে, চট্টগ্রাম টেস্ট স্টেড

তামিম ইকবালের মোট রান কত?

তামিম ইকবাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সব ফরম্যাট মিলিয়ে ১৫১৪৮ রান করেছেন। তার রান বিভাজন হল:

টেস্ট: ৪৭৮৮ রান (৩৯.৫৭ গড়)
ওয়ানডে: ৮৩১৩ রান (৩৬.৬২ গড়)
টি-টোয়েন্টি: ১৭০১ রান (২৪.৬৫ গড়)
তামিম ইকবাল বাংলাদেশের হয়ে সব ফরম্যাট মিলিয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। তিনি টেস্টে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকও।

তামিম ইকবাল ২০২৩ সালের ৫ জুলাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন।

তামিম ইকবাল কত টাকার মালিক?

তামিম ইকবালের মোট সম্পদের পরিমাণ আনুমানিক ২০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১৬০ কোটি টাকা)। এই সম্পদের মধ্যে রয়েছে তার ক্রিকেট থেকে আয়, ব্যক্তিগত ব্যবসা এবং বিজ্ঞাপন থেকে আয়।

তামিম ইকবাল ক্রিকেট থেকে প্রতি বছর প্রায় ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করেন। তিনি আইপিএলে খেলেছেন এবং সেখানেও ভালো অর্থ উপার্জন করেছেন। তিনি বাংলাদেশে একটি ফার্ম এবং একটি রেস্টুরেন্টের মালিক। এছাড়াও, তিনি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনে কাজ করেন।

তামিম ইকবাল বাংলাদেশের সবচেয়ে ধনী ক্রিকেটারদের একজন। তিনি তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার এবং ব্যবসায়িক উদ্যোগের মাধ্যমে প্রচুর অর্থ উপার্জন করেছেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment