মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:২৬ পূর্বাহ্ন

তুলে নিয়ে ৮ম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ‘ধর্ষণ’

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২০, ৫.৩২ পিএম
ছবি- প্রতীকী।

ক্যাম্পাস টুডে ডেস্ক


গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার নয়নপুর এলাকায় অএক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে উঠেছে। ওই ছাত্রী অষ্টম শ্রেণি পড়ূয়া। এ ঘটনায় ৪জনকে আসামি করে থানা মামলা করা হয়। জানা গেছে, এই ঘটনায় উর্মি নামে এক আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিজ্ঞাপন

১৫ জানুয়ারী, বুধবার দিবাগত রাতে ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন, লিটনের ছেলে সুজন (১৯),নয়নপুর এলাকা সোহরাবের ছেলে শরীফ (১৮), নয়নপুর এলাকার হারুনের বাড়ির ভাড়াটিয়া কবিরের স্ত্রী উর্মি (১৮) ও শরীফ (২০)।

ভুক্তভোগী ছাত্রীর মা জানান, ওই মেয়ে স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। বিদ্যালয়ের যাওয়া-আসার পথে নয়নপুর এলাকার সোহরাবের ছেলে প্রেম প্রস্তাবসহ বিভিন্ন ধরনের কুপ্রস্তাব দিতো এবং প্রস্তাবে সাড়া না দিলে অপহরণের হুমকিও দেয়। ১৫ জানুয়ারি বুধবার কারখানার কতর্ব্যপালন শেষে রাত ১০টায় বাসায় এসে মেয়েকে দেখতে না পেয়ে পরিবারের অন্যান্য স্বজনসহ আশপাশে খোজাখুঁজি শুরু করে। খোজাখুঁজি এক পর্যায়ে নয়নপুর গ্রামের জনৈক আসাদ মোল্লার বাড়ির পাশে ঝোঁপঝাড়ের ভেতর থেকে মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায়।

বিজ্ঞাপন

জ্ঞান ফিরলে ছাত্রী জানায়, “বুধবার রাত ৮টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘরের বাইরে গেলে শরীফ মুখে গামছা দিয়ে তুলে নেয়। নয়নপুর গ্রামের জনৈক আসাদ মোল্লার বাড়ির পাশে ঝোপঝাঁড়ে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে ফেলে রেখে যায়।”

এ বিষয়ে মামলার তদারক কর্মকর্তা শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাজমুস সাকীব বলেছেন, “এঘটনায় উর্মি নামের মামলার ৪নাম্বার আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।”

বিজ্ঞাপন

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today