দায় এবং দায়িত্ব

দায় এবং দায়িত্ব
মোঃ আলমগীর হোসেন



দায়িত্ব যতো বড়ো হবে,
ততো বড়ো দায়;
দায় এড়াতে কেউ পারে না,
যেমনই হোক আয়।

বৈধ পথে আয়ের সাথে
ব্যয়ের অসঙ্গতি,
তখনই হয় দায়িত্বশীলের
জীবনে দূর্গতি!

বিলাসিতায় হেলায় খেলায়
গা ভাসিয়ে দিলে,
দায় তখনই যায় হারিয়ে
দুঃখের চিতানলে।

তখনই হায়! বিবেক হারায়,
অসৎ পথের ধান্ধা!
নৈতিকতা পালায় যথা,
আলোর সাথে আন্ধা!

আলোর সাথে দিনে রাতে
হয় আঁধারের যুদ্ধ;
আলো হারে আপন ঘরে,
প্রকৃতি হয় ক্রুদ্ধ।

ক্ষুদ্র পাপের মাপকাঠিটা
সীমা রেখা ছাড়ে,
ভিখারীর ন্যায় অনৈতিক আয়
দুস্থ লোকের দ্বারে!

পরের বাড়ি বিক্রি করি
ঘুষের টাকা আনে,
ক্ষুব্ধ হয়ে প্রকৃতিও
পাপের দিকে টানে।

ঘুষের টাকায় গাড়ি হাকায়,
অনেক বড় বাড়ি;
রাতে কেনো ঘুম আসে না,
ব্যথার ছড়াছড়ি।

যায় রসাতল সকল আমল,
অহ নিশি কান্না;
কেউ শোনে না ব্যথার কথা;
বুকে পানির ঝর্ণা।

ঝর্ণা বেয়ে নদী হয়ে
যায় সাগরের দিকে,
তাহার টাকা মসজিদেও
নেয় না কোন লোকে!

মন্দিরে বা গীর্জা ঘরে,
কিংবা প্যাগোডাতে
হয় না কোন জায়গা তাহার,
সারা দুনিয়াতে।

চতুর্দিকে সকল লোকে
জবাবদিহি চায়,
দায়িত্ব যতো বড়ো হবে,
ততো বড়ো দায়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment