রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরেনাম ::
ক্ষুদ্র ঋণ: গ্রামীণ মানুষের আতঙ্ক ও সমাধান গণরুমে কাটানো সময়গুলো নিঃসন্দেহে বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের সেরা মুহূর্ত কয়রায় সাংবাদিককে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি কিশোরগঞ্জের এক গৃহবধূ ধর্ষণের শিকার, গ্রেফতার দুই পিছিয়ে যাওয়া প্রেসিডেন্টস কাপের ফাইনাল আজ ফেনীতে স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় বেসরকাখাতের ভূমিকা শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত করোনার অজুহাতে জাতিকে ধ্বংস করতেই অটোপাসের সিদ্ধান্ত গণ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে হুমকি, থানায় জিডি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ে সিদ্ধান্ত আসবে চলতি সপ্তাহে: ইউজিসি চেয়ারম্যান যুক্তরাষ্ট্রের ১০০ ভেন্টিলেটর উপহার পৌঁছেছে

‘ধর্ষক নুর, শাস্তি চাই’: ছবিটি ভুয়া

  • আপডেট টাইম বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১.৪১ এএম
ধর্ষক নুর শাস্তি চাই

ক্যাম্পাস টুডে ডেস্ক


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরসহ বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদের ছয়জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও এতে সহায়তা করার অভিযোগে মামলা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী।

ঘটনার পরপরই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি ছবি ছড়িয়ে যেতে দেখা গেছে। যেখানে এক নারীর হাতে একটি পোস্টারে লেখা -‘ধর্ষক নুর শাস্তি চাই #JusticeForDU’।

এছাড়াও ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ধর্ষণের সহায়তাকারী নুরু ও ধর্ষক হাসান আল মামুন সহ ধর্ষণে সহযোগী সকল আসামীর গ্রেফতার দাবীও জানান এই ছবি ব্যবহার করে।

বিডি ফ্যাক্টচেক জানিয়েছে, এরইমধ্যে পোস্টারে লেখা ওই নারীর হাতে ছবিটি ভুয়া বলে জানা গেছে। এর আসল ছবিটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল কংগ্রেসের এক স্থানীয় নেতা নুর আলম হোসেনের বিরুদ্ধে একজন শিক্ষিকা ধর্ষণের অভিযোগ করেন।

এই ঘটনায় অভিযোগের পর তার প্রতিবাদে উক্ত ছবির এই নারী পোস্টারসহ প্রতিবাদ জানান এবং ধর্ষকের শাস্তি দাবী করেন। পোস্টারটিতে মূলত লেখা ছিল ‘ধর্ষক নুর আলমের শাস্তি চাই #Justice For Mariena’। এই ছবির পরিপ্রেক্ষিতে এর টেক্সট এডিট করে ছাত্রনেতা ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিপি নুরুলহক নুরের সাথে সংশ্লিষ্ট করে প্রচার করা হয়েছে।

আসল ছবিটির স্ট্যাটাসে দেখা যায়, পশ্চিমবঙ্গের দিনহাটা এলাকার প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষিকা মেরিনা খন্দকারকে তার বাড়ি গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রভাবশালী নেতা নুর আলম হোসেন কুপ্রস্তাব দেন। এতে মেরিনা বিবি প্রত্যাখ্যান করলে এবং তার বাড়িতে আসতে নিষেধ করেন। পরে মেরিনা যখন বাড়িতে একা থাকায় তাকে ধর্ষণ ও মেরে ফেলার হুমকি দেয় কংগ্রেস নেতা নুর আলম।

এর পর মোবাইলে তোলা ছবি নিয়ে নুর আলম বার বার মেদিনাকে ব্ল্যাকমেল করেন ও ধর্ষণ করতে থাকেন। কাউকে কিছু জানালে তাকে ও তার স্বামীকে খুন করার হুমকি দেওয়া হয়, সাত বছরের শিশু পুত্রকে অপহরণ করার হুমকি দেওয়া হয়।‌

এর আগে গত রবিবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) এক ছাত্রী লালবাগ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন। মামলায় মোট ছয়জনকে আসামি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ধর্ষণে সহযোগী হিসেবে নুরুল হক নুরের নাম উল্লেখ করা হয়েছে।

আসল ছবিটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
© All rights reserved © 2019-20 The Campus Today
Theme Download From ThemesBazar.Com