শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০৭ পূর্বাহ্ন

বিশ্ববিদ্যালয়ে চালু হচ্ছে ‘ বেতার বিদ্যাসাগর ‘

  • আপডেট টাইম বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১.০৪ এএম

ক্যাম্পাস টুডে ডেস্ক


বিদ্যাসাগরের জন্মদিবসেই পথ চলা শুরু করতে চলেছে বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব কমিউনিটি রেডিয়ো স্টেশন। নাম ‘বেতার বিদ্যাসাগর’।আগামী শনিবার বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবার্ষিকীর সমাপ্তি অনুষ্ঠান হবে বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেই অনুষ্ঠানেই রেডিয়ো স্টেশনটির আনুষ্ঠানিক   উদ্বোধন করবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য রঞ্জন চক্রবর্তী।এমনটাই জানিয়েছেন ভারতীয় গণমাধ্যমের খবরে।

ভারতীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবার্ষিকী উপলক্ষেই বিশ্ববিদ্যালয়ের এই উদ্যোগ। উপাচার্য বলেন, ‘‘বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব কমিউনিটি রেডিয়ো স্টেশন চালু হতে চলেছে। সেটি চালুর ফলে মেদিনীপুরের এই অঞ্চলের স্থানীয় মানুষেরা উপকৃত হবেন।’’

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে খবর, এই এফএম রেডিয়ো স্টেশন (৯০.৮ এফএম) থেকে নানা শিক্ষামূলক ও সচেতনতামূলক অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হবে। শিক্ষকদের থেকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ পাবেন পড়ুয়ারা। জনস্বার্থমূলক সচেতনতা প্রচারও হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের এক আধিকারিক মনে করিয়ে দিচ্ছেন, ‘‘কমিউনিটি রেডিয়ো ব্যাপারটা এলাকার নিজস্ব। নিশ্চিতভাবে এখানকার মানুষের কথা ভেবেই অনুষ্ঠান হবে।’’

তাঁর সংযোজন, ‘‘জনস্বার্থমূলক এবং সচেতনতামূলক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষদের কাজে লাগে এমন বিষয়েও এই কমিউনিটি রেডিয়োর বিশেষ ভূমিকা থাকবে।’’ আপাতত, সপ্তাহে তিনদিন অনুষ্ঠান সম্প্রচারিত হবে। এক মাস পরে পুরোদস্তুর অনুষ্ঠান সম্প্রচার শুরু হয়ে যাওয়ার আগে। কমিউনিটি রেডিয়ো স্টেশনের নিজস্ব ওয়েবসাইটও তৈরি করা হবে। ফলে বিশ্বের যে কোনও প্রান্তের শ্রোতারা এই রেডিয়ো স্টেশনের অনুষ্ঠান শুনতে পাবেন।

বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয় নানা উদ্যোগের মধ্যে দিয়ে বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবার্ষিকী পালন করে চলেছে। করোনা আবহে যাবতীয় বিধি মেনেই আগামী শনিবার তার সমাপ্তি অনুষ্ঠান হবে বিশ্ববিদ্যালয়ে। ইতিমধ্যেই সেখানে প্রকাশনা বিভাগ চালু হয়েছে। সেই বিভাগের যাত্রা শুরু হয়েছে বিদ্যাসাগর রচনা সমগ্র প্রকাশ দিয়ে।

পাশাপাশি, বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে বিদ্যাসাগরের নামাঙ্কিত অধ্যাপক পদ সৃষ্টি হয়েছে। উপাচার্য মনে করিয়ে দিচ্ছেন, ‘‘২০১৭ সালে আমি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একটি চিঠি লিখি। আমি লিখি, বিদ্যাসাগরের দু’শো বছর আমাদের খুব যত্ন করে পালন করা উচিত।

অনেকগুলি প্রস্তাব দিয়েছিলাম। তার মধ্যে একটি ছিল, বিদ্যাসাগরের নামাঙ্কিত অধ্যাপক পদ সৃষ্টি করা। এই প্রস্তাবে সাড়া দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগে বিদ্যাসাগরের নামাঙ্কিত অধ্যাপক পদ সৃষ্টি করেছেন।’’

পদটি সৃষ্টির জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতাও জানিয়েছেন উপাচার্য। বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে ‘বিদ্যাসাগর পুরস্কার’ চালু হয়েছে। বিশিষ্ট বিদ্যাসাগর-গবেষকদের নিয়ে হয়েছে আলোচনাসভা।

বিশ্ববিদ্যালয় আগেই বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবর্ষ উদ্‌যাপন কমিটি গড়েছে। এই কমিটির উদ্যোগেও বিদ্যাসাগর স্মরণে একের পর এক কর্মসূচি হয়েছে। আগামী দিনে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদ্যাসাগরের নামাঙ্কিত গবেষণাকেন্দ্রও গড়ে ওঠার কথা।

গত বছর ঘাটালের বীরসিংহে বিদ্যাসাগরের দ্বিশত জন্মবার্ষিকীর সূচনা অনুষ্ঠানে এসে ওই গবেষণাকেন্দ্র গড়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তিনি জানিয়েছিলেন, বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বিদ্যাসাগরের নামাঙ্কিত গবেষণাকেন্দ্র হবে। নিজস্ব কমিউনিটি রেডিয়ো স্টেশন চালু করতেও উদ্যোগী হয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয়। এ বার সেটা চালু হতে চলেছে। শনিবারের অনুষ্ঠান বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউটিউব চ্যানেলে সম্প্রচারিত হবে বলে সূত্রের খবর।

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
© All rights reserved © 2019-20 The Campus Today
Theme Download From ThemesBazar.Com