বিসিএস প্রস্তুতি, সংসারী না হওয়ায় ঢাবি ছাত্রীকে হত্যার অভিযোগ, গ্রেপ্তার ১

বিসিএস প্রস্তুতি, সংসারী না হওয়ায় ঢাবি ছাত্রীকে হত্যার অভিযোগ, গ্রেপ্তার ১

শ্বশুর বাড়ি থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের সাবেক শিক্ষার্থী সুমাইয়া বেগমের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ ঘটনায় সোমবার (২২ জুন) মধ্যরাতে সুমাইয়ার মা নুজহাত হত্যা মামলা দায়ের করেন।

প্রথমে এ মৃত্যুর ঘটনায় সুমাইয়ার বাবার বাড়ির কেউ অভিযোগ না করায় পুলিশ ইউডি মামলা করে, পাশাপাশি রাতেই একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

সুমাইয়ার চাচা মোহাম্মদ আলী জানান, রাত ১টার দিকে পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বাড়িতে এসে মামলা করার কথা বলেন। পরে সুমাইয়ার মা নুজহাত ৪ জনকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেন।

মা নুজহাত বলেন, ২০১৯ সালের ১৪ এপ্রিল বিয়ে হয় হরিশপুর এলাকার মোস্তাকের সঙ্গে সুমাইয়ার। এরপর বেশ কয়েকবার তাকে টাকা দেয়া হয়। এমনকি বাড়ির আসবাবপত্র সব কিছু সুমাইয়ার বাবা কিনে দেন মেয়ের সংসারে।

আট মাস আগে সুমাইয়ার বাবা সিদ্দিকুর রহমান মারা যান। তার মৃত্যুর পরও জামাতা মোস্তাক আবার টাকা চান।

এ বিষয়ে মেয়ে তাকে কিছু না বলে বিসিএসের প্রস্তুতি নেয়া শুরু করেন। নিজেই আয় করে স্বামীর পরিবারকে সহযোগিতা করবে এমনটা চিন্তা করে সে। কিন্তু এটা মেনে নিতে পারেনি তার শ্বশুর বাড়ির লোকজন। তাই তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। আমি আমার মেয়ে হত্যার বিচার চাই।

নাটোরের পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, প্রথমে এই ঘটনায় কেউ অভিযোগ না দেয়ায় পুলিশের পক্ষ থেকে ইউডি মামলা করা হয়েছিলো। পরবর্তীতে সুমাইয়ার পরিবার থেকে হত্যার অভিযোগ আসায় রাতে হত্যা মামলা নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ৪নং অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *