বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের তিন দফা মেনে নিলেন ভিসি

বেরোবি টুডেঃ বিগত বছরে ভর্তি জালিয়াতির সাথে জড়িত অভিযুক্ত শিক্ষক, কর্মকর্তা কর্মচারীদের ভর্তি পরীক্ষা চলাকালীন প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি ও ভর্তি সংক্রান্ত কর্মকান্ড থেকে বিরত রাখাসহ তিন দফা দাবিতে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ করে আন্দোলন করে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের (বেরোবি) সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (০৬ নভেম্বর) আন্দোল শুরু হওয়ার পাঁচ ঘন্টা পরে উপাচার্য
অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ সরাসারি এসে তাদের দাবী মেনে নেন। এসময় দাবি মেনে নেয়ায় সাধারণ শিক্ষার্থীরা আনন্দ-উল্লাস প্রকাশ করেন।

এদিন দুপুর ১২টায় সাধারণ শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে ক্যাম্পাসে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে শিক্ষার্থীরা। পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে তারা। দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ নম্বর ফটকের সামনে ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক অবরোধ করেন তারা।

পরে আন্দোলন থামাতে প্রশাসনের পক্ষে কথা বলতে এসে বিকেল চারটায় আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের কাছে অবরুদ্ধ হয়ে পড়েন শহীদ মুখতার ইলাহী হলের প্রভোস্ট (চলতি দায়িত্ব) শাহীনুর রহমান। এর আধাঘন্টা পরে উপাচার্য অধ্যাপক ড. নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ এসে মৌখিকভাবে শিক্ষার্থীদের সকল দাবী মেনে নিয়ে বলেন, আপনাদের দেওয়া দাবী প্রশাসনের পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নিয়ে মেনে নেওয়া হয়েছে। আপনারা আন্দোলন ছেড়ে রুমে ফিরে যান।

যৌক্তিক দাবি আন্দোলনের মুখপাত্র জাকারিয়া জাকির বলেন, “আজকের এই আন্দোলন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন মেনে নেয়ায় পুরো বাংলাদেশে বেরোবির সুনাম অর্জিত হবে । এখন থেকে প্রত্যেকবার ভর্তি পরীক্ষার সময়ে ভর্তিচ্ছু ছাত্রছাত্রীরা এবং তাদের সাথে আসা অভিভাবকরা হলে থাকবেন । আমরা চাই সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের মত বেরোবি ও নিজের ধারায় এগিয়ে যাক বিশ্বের দরবারে।”



সংবাদ প্রেরক দ্য ক্যাম্পাস টুডের বেরোবি প্রতিনিধি সাকীব খান।



সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment