রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ন

প্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। আমরা দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, আমাদের আগের ফেসবুক পেজটি হ্যাকড হয়েছে; আমাদের নতুন ফেসবুকে পেজে লাইক বা ফলো করে সাথেই থাকুন । ধন্যবাদ।
 

রাবি ভিসি পদে উঠে এসেছে নির্বাচিত তিন সদস্যের নাম

  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ১১ মে, ২০২১, ১১.৩৩ এএম
রাবি ভিসি পদে উঠে এসেছে নির্বাচিত তিন সদস্যের নাম

দ্যা ক্যাম্পাস টুডেঃ রাবিতে গত ৬ মে শূন্য হয়েছে ভিসি পদ। নিয়মানুযায়ী সিনেট সদস্যদের ভোটে নির্বাচিত তিনজনের প্যানেল থেকে একজনকে ভিসি নিয়োগ হওয়ার কথা। রাবিতে এ রীতির প্রচলন এখন আর নেই।নিয়মানুযায়ী ১৯৯৯ সালে সিনেট প্যানেল থেকে রাবিতে সর্বশেষ ভিসি হয়েছিলেন প্রফেসর ড. সাইদুর রহমান খান। এরপর থেকে সিনেট প্যানেলে কেউ আর ভিসি হননি। এরপর থেকে সবাই সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সুপারিশে ভিসি হয়েছেন।

এদিকে রাবিতে বর্তমানে ভিসি পদ পূরণ নিয়ে শুরু হয়েছে গুঞ্জন। আগামী চার বছরের জন্য কাকে দায়িত্ব দেবে শিক্ষা মন্ত্রণালয় তার জন্য অপেক্ষা চলছে। মন্ত্রণালয়ের সুপারিশে রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ ভিসি পদে নিয়োগ প্রজ্ঞাপন জারি করবেন।

ইতিমধ্যে পদ পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় এক ডজন শিক্ষক। তবে আলোচনার শীর্ষে রয়েছে তিনটি নাম। তবে এবার শিক্ষাবান্ধব সৎ, যোগ্য ও দক্ষ একজন কাউকে রাবির ভিসি করার দাবি জানিয়েছে শিক্ষক ছাত্র সহ সর্বমহল।

গত মেয়াদে ২০১৭ সালের ৫ মে দ্বিতীয় বারের মতো ভিসি হয়ে প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহানের কর্মকাণ্ড ভিসি পদটিকে বিতর্কিত করেছেন। শুধু তাই নয়, বিদায় নেওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগেও গণনিয়োগ দিয়ে গেছেন। এতে সমালোচনার মুখে রাবির বিদায়ী ভিসি। প্রফেসর সোবহানের মতো আরেকজন কাউকে রাবিতে ভিসি হিসেবে দেখতে চাচ্ছেন না শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

এদিকে জানা গেছে, পরবর্তী ভিসি আলোচনায় থাকা শীর্ষে নামে রয়েছে সাবেক প্রো-ভিসি চৌধুরী সারওয়ার জাহানের। তিনি এর আগে প্রো-ভিসির দায়িত্বে ছিলেন ২০১০ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত। ওই সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, গবেষণা ও অবকাঠামোগত ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। এছাড়াও তার বড় সফলতা বলে মনে করা হয়, নিয়োগে স্বচ্ছতা। যেহেতু বর্তমানে নিয়োগ বাণিজ্যের কারণে রাবি সমালোচনার শীর্ষে আছে। এর রেষ কাটাতেই দায়িত্ব দিতে পারেন চৌধুরী মো. সারওয়ার জাহানকে বলে শোনা যাচ্ছে।

আলোচনার শীর্ষে থাকা আরেকজন হচ্ছেন ইতিহাস বিভাগের সিনিয়র প্রফেসর ড. আবুল কাশেম। তিনি আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন। এছাড়াও রাজশাহী জেলা বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন। তার সততা ও দক্ষতা নিয়ে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে দ্বিমত নেই।

অন্যদিকে শীর্ষ আলোচনায় আছেন হিসাববিজ্ঞান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রফেসর ড. সাইয়েদুজ্জামান। তিনি বর্তমানে প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের প্যানেল থেকে শিক্ষক সমিতির সহ-সভাপতির দায়িত্বে আছেন। শিক্ষক-ছাত্র সমাজে তার ভাল গ্রহণ যোগ্যতা থাকায় বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছিলেন। এছাড়াও বাংলাদেশে এ্যাকাউন্টিং এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছে ড. সাইয়েদুজ্জামান।

অন্যদিকে আলোচনায় রয়েছে, বর্তমান প্রো-ভিসি প্রফেসর ড. আনন্দ কুমার সাহা, বর্তমান প্রগতিশীল শিক্ষক সমাজের আহ্বায়ক ও প্রাণ রসায়ন ও অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. হাবিবুর রহমান। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রান্তিকাল মুহূর্তেও প্রগতিশীল শিক্ষকদের মধ্যে কনভেনার নির্বাচিত হয়েছেন।

ভিসি হিসেবে আলোচিত অন্যদের মধ্যে ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর জিনাত আরা, সাবেক লাইব্রেরি প্রশাসক প্রফেসর ড. সফিকুন্নবী সামাদীরও নাম রয়েছে।

The Campus Today YouTube Channel


প্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। আমরা দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, আমাদের আগের ফেসবুক পেজটি হ্যাকড হয়েছে; আমাদের নতুন ফেসবুকে পেজে লাইক বা ফলো করে সাথেই থাকুন । ধন্যবাদ।


 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর

প্রিয় পাঠক, শুভেচ্ছা নিবেন। আমরা দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, আমাদের আগের ফেসবুক পেজটি হ্যাকড হয়েছে; আমাদের নতুন ফেসবুকে পেজে লাইক বা ফলো করে সাথেই থাকুন । ধন্যবাদ।


 

themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today

নতুন পেজে যুক্ত হতে The Campus Today New Page ক্লিক করুন 

আমাদের আগের পেজটি হ্যাকড হয়েছে, নতুন পেজে যুক্ত হতে  The Campus Today New Page ক্লিক করুন 

আমাদের আগের পেজটি হ্যাকড হয়েছে, নতুন পেজে যুক্ত হতে  The Campus Today New Page ক্লিক করুন 

This will close in 5 seconds