র‌্যাগিং প্রমাণিত হলে ছাত্রত্ব বাতিল: রাবি প্রক্টর

ওয়াসিফ রিয়াদ, রাবি প্রতিনিধি


“বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে যদি র‌্যাগিং এর অভিযোগ প্রমাণিত হয় তাহলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ শাস্তি স্বরূপ অভিযুক্ত শিক্ষার্থীর ছাত্রত্ব বাতিল করা হবে। এছাড়াও ওই শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’ বলে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) জানিয়েছেন প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান।

রবিবার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমানের সাথে সাক্ষাৎকালে তিনি এসব তথ্য নিশ্চিৎ করেছেন।

রাবি প্রক্টর লুৎফর রহমান বলেন, র‌্যাগিং একটি সামাজিক ব্যাধি। দিনের পর দিন বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে র‌্যাগিং এর প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। র‌্যাগিং এর প্রবণতা কমাতে শিক্ষার্থীদের মাঝে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য মাইকিং করা হবে। সব বিভাগ ও ইনস্টিটিউটগুলোতে ‘অ্যান্টি র‌্যাগিং’ সম্পর্কে লিখিত ভাবে জানিয়ে দেয়া হবে। বিশ^বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে সকল ধরণের সচেতনতামূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার পরও যদি কোন শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে র‌্যাগিং এর অভিযোগে সত্বতা পাওয়া যায় তাহলে বিশ^বিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ শাস্তি স্বরূপ তাকে বহিষ্কার করাসহ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এ সময় প্রক্টর আরো বলেন, “র‌্যাগিং এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হাইকোর্টের নির্দেশনা মোতাবেক একটি মনিটরিং কমিটি গঠন করা হবে। এই কমিটি সকল ধরনের র‌্যাগিং বিষয়ক কর্মকান্ডের নজরদারি করবে।”

গত বছরের (২০১৯) সালের ৯ অক্টোবর র‌্যাগিং এর বিরুদ্ধে দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দিয়েছিলো বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। এই নির্দেশনা মোতাবেক রাবিতেও র‌্যাগিং এর বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছে বিশ^বিদ্যালয় প্রশাসন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment