শতাধিক শিক্ষার্থীকে নোবিপ্রবি স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সহযোগিতা

শতাধিক শিক্ষার্থীকে নোবিপ্রবি স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সহযোগিতা

মাইনুদ্দিন পাঠান, নোবিপ্রবি প্রতিনিধিঃ করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ, সেই সঙ্গে ঘূর্ণিঝড় আম্পানের আঘাতে বিপর্যস্ত দেশের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও শিক্ষার্থীদের কথা ভুলে যাননি নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ।

এই দুর্যোগে বিকাশ/রকেট/নগদের মাধ্যমে নোবিপ্রবির অসচ্ছল শতাধিক শিক্ষার্থীকে আর্থিক উপহার তুলে দেন সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ।

শনিবার (২৩ মে) এক টেলি কনফারেন্সের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেন স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সভাপতি ড.মোঃ মফিজুল ইসলাম।

এই সময় স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় টেলি কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড.মোঃদিদার-উল আলম,কোষাধ্যক্ষ ড.মোঃ ফারুক উদ্দীন, শিক্ষক সমিতির তিন বার নির্বাচিত সাবেক সভাপতি ড. আবদুল্লাহ আল মামুনসহ সংগঠনের সিনিয়র সদস্যবৃন্দ,নোবিপ্রবি সাংবাদিক সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সবুজ, কোষাধ্যক্ষ মাইনুদ্দিন পাঠনসহ অন্যান্যরা।

স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ সভাপতি ড. মো. মফিজুল ইসলাম বলেন, ব্যক্তিগত জায়গা থেকে আমরা অনেকেই নিজ নিজ এলাকার অসচ্ছল মানুষ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছিলাম। এই দুর্যোগকালে নোবিপ্রবি স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ দেশরত্ন শেখ হাসিনার মন্ত্রে দীক্ষিত হয়ে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে করোনা ও ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষার্থীদের মাঝে এই উপহার তুলে দিচ্ছে । ‘করোনা মোকাবেলায় নোবিপ্রবিয়ানের পাশে নোবিপ্রবিয়ান’ এর সদস্যবৃন্দ শিক্ষকদের হয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে এই উপহার পৌছে দিচ্ছে। আমরা তাদেরও ধন্যবাদ জানাই।

তিনি আরো বলেন, মুঠোফোনে মাধ্যমে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের এই উদ্যোগের কথা জানতে পেরে নোয়াখালী-৪ আসনের সম্মানিত সংসদ সদস্য জনাব একরামুল করিম চৌধুরী মহোদয় এর প্রশংসা করেন। তিনি এসময় সংগঠনের সকল শিক্ষককে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, দেশের এই ক্রান্তিকালে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ মানবিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। ভবিষ্যতে তিনি এই সংগঠনটির সকল শুভ উদ্যোগকে সমর্থন জানিয়ে পাশে থাকার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ ড. ফারুক উদ্দিন মুঠোফোনে সংগঠনটির কার্যক্রমের প্রশংসা করে বলেন, সংগঠন হিসেবে স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ সদা-সর্বদার জন্য জাতির পিতার চেতনা যে লালন করে এটা তারই বহিঃপ্রকাশ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো: দিদার-উল-আলম বলেন, “জাতির পিতার আদর্শে উজ্জীবিত স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ বরাবরই মানবতার পক্ষে কাজ করে চলেছে। আজকের এই মহৎ উদ্যোগের জন্য নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদকে আবারও ধন্যবাদ জানাই।”

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *