বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ১১:৩৪ অপরাহ্ন

শিক্ষকদের অফিস রুম নিয়ে তিন বিভাগ শিক্ষার্থীদের সংঘাত (ভিডিও)

  • আপডেট টাইম বুধবার, ৪ মার্চ, ২০২০, ৩.৩৫ পিএম

বশেমুরবিপ্রবি টুডে


গোপালগঞ্জ: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি) শিক্ষকদের রুম নিয়ে ফার্মেসী বিভাগ ও মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘাতের ঘটনা ঘটেছে।

বুধবার (০৪ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবনের ২য় তলায় ২০৫ নং শিক্ষকদের রুম নিয়ে ওই দুই বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘাত হয়।

ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষক আবুল বাশার রিপন খলিফা জানান, ২০৫ নং রুমটি ফার্মেসী বিভাগের জন্য বরাদ্দকৃত।

ফার্মেসী চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী গোলাম রাব্বানী জানান ” বিশ্ববিদ্যালয় আইসিটি সেল একাডেমিক ভবনের পঞ্চম তলায় স্থানান্তর করায় আমরা ফার্মেসী বিভাগের জিনিসপত্র ২০৫ নম্বর রুমে স্থানান্তর করতে গেলে আমরা বাঁধা পাই, শিক্ষকগণের নির্দেশে আমরা বিষয়টা মিমাংসার জন্য অপেক্ষা করি কিন্ত এরমধ্যে কারো নির্দেশে কয়েকজন লাঠি নিয়ে আমাদের ওপর চড়াও হয় আমরা তা প্রতিরোধের চেষ্টা করি। এতে আমাদের কয়েকজন আহত হয়।”

ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থীরা আরও জানান, একাডেমিক ভবনের ২য় তলায় ফার্মেসী বিভাগের জন্য বরাদ্দকৃত ২০৫ নং শিক্ষকদের অফিস রুমে ডেক্স, চেয়ার ও কম্পিউটার সরঞ্জামাদি স্থানান্তর করতে গেলে মনোবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বাঁধা দেয়।শিক্ষকগণ বিষয়টি সমাধান করবেন এমন আশ্বাসে ঘটনা স্থান ত্যাগ করার মনস্থির করলে তৎক্ষনাৎ কৃষি বিভাগ তৃতীয় বর্ষের মারজিউল ইসলাম রোজ, রিয়াদ, নয়ন, মনিকসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী লাঠিনিয়ে ফার্মেসী বিভাগের করিডোরে প্রবেশ করে শিক্ষার্থীদের উপর হামলা করতে উদ্ধত হয়। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে রোকোন, রনি, রিয়াদ, রাব্বি আহত হয়েছেন। সকলে ফার্মেসী বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী।

এ ব্যাপারে মনোবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শামীম জানান, বিশ্ববিদ্যালয় আইসিটি সেল একাডেমিক ভবনের পঞ্চম তলায় স্থানান্তর করায় আমরা মনোবিজ্ঞান বিভাগের জিনিসপত্র ২০৫ নম্বর রুমে স্থানান্তর করতে গেলে আমরা বাধা পাই। এতে ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থীরা আমাদের বিভাগের শিক্ষকদের সাথে খারাপ আচরণ ও অপমান করে। এছাড়া তারা আমাদের শিক্ষকদের রুমে প্রবেশে বাধা দেয়। শিক্ষকগণের নির্দেশে আমরা বিষয়টা মিমাংসার জন্য অপেক্ষা করছি।

অভিযোগ ওঠা কৃষি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মনিক বলেন, “ঘটনাস্থলে পরে উপস্থিত ছিলাম। তবে ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা সম্পূর্ণ মিথ্যা।”

এ বিষয়ে মনোবিজ্ঞান বিভাগ ও ফার্মেসী বিভাগের শিক্ষকেরা বিষয়টি সমাধান না হওয়া পর্যন্ত কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ভিডিও দেখুন 

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today