শ্রীমঙ্গলে গৃহবধূকে গনধর্ষণ, আটক ২

শ্রীমঙ্গলে গৃহবধূকে গনধর্ষণ, আটক ২

ক্যাম্পাস টুডে ডেস্ক

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে স্বামীকে ছাড়িয়ে আনতে আইনজীবির কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে গেস্ট হাউজে নিয়ে গৃহবধূকে (২৫) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে ওই নারী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ দুই জনকে গ্রেপ্তার করে।

শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের অভিযানে রোববার দুপুরে ধর্ষণের অভিযোগে সাতগাঁও গ্রামের কাজল মিয়া (৩০) পিতামৃত-ছুরুক মিয়া ও মতিন মিয়া (২৮) পিতামৃত- রহমান মিয়া কে উপজেলার আমরাইল ছড়া চা বাগান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গত ১৯ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টার দিকে শ্রীমঙ্গল শহরের হামিদা গেস্ট হাউজে ঘটনাটি ঘটে।

মামলাসূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার ওই নারী গত সেপ্টেম্বর মাসের ১৯ তারিখ জেল খানায় তার স্বামীকে দেখতে তার প্রতিবেশী কাজল মিয়া ও মতিন মিয়া তাকে নিয়ে যায়। সেখান থেকে বের হয়ে তারা তার স্বামীকে ছাড়িয়ে আনতে একজন উকিলের সাথে দেখা করতে বলে। উকিলের সাথে দেখা করে তারা তার স্বামীকে ছাড়িয়ে আনবে বলে তাকে জানায়। পরে সে তাদের সাথে যায়। তারা তাকে শ্রীমঙ্গল শহরের হামিদা গেস্ট হাউজে নিয়ে একটি রুমে বসায়।

অনেকক্ষন বসার পর তারা দু’জনে তার সাথে থাকা ৫ বছরের শিশুটিকে অন্য কক্ষে নিয়ে গিয়ে জোর পূর্বক পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে তারা তাকে গেস্ট হাউজে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে সে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়, সেখানে তার ডাক্তারি পরীক্ষা হয়। সে অসুস্থ থাকায় থানায় অভিযোগ করতে পারেনি। ওই নারীর স্বামী একটি ওয়ারেন্টের আসামি হিসেবে জেলখানায় রয়েছেন।

শ্রীমঙ্গল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) সোহেল রানা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, প্রাথমিকভাবে ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। আইনী ব্যবস্থা অব্যাহত রয়েছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *