কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের বাসায় চুরি

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকের বাসায় চুরি

কুবি প্রতিনিধি


কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) এক শিক্ষকের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটেছে।

ওই শিক্ষকের নাম জান্নাতুল ফেরদৌস। তিনি লোক প্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক।

বৃহস্পতিবার (২৫ জুন) রাতে কুমিল্লার ২ নং দুর্গাপুর ইউনিয়নের নিজ বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

চুরির ঘটনয়া ওই শিক্ষকের স্বামী মো. সামস কবির ভ’ইয়া চেঙ্গিস বাদী হয়ে কুমিল্লার কোতয়ালী মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ২ নং দুর্গাপুর ইউনিয়নের নিজ বাড়িতে পরিবার নিয়ে থাকেন কুবি শিক্ষক জান্নাতুল ফেরদৌস। বুধবার (২৫ জুন) রাত শেষে ২৬ জুন রাত সাড়ে ১২ টার দিকে তিনি এবং পরিবারের অন্য সদস্যরা ঘুমাতে যান।

পরে ভোর সাড়ে ৪ টায় উঠে আলমারি খোলা দেখে অন্যদেরকে জাগিয়ে তুলেন। এসময় তারা দেখেন, থাকার রুমের আলমারির দরজা খোলা এবং ঘরের পিছনের বারান্দার উত্তর পাশের ড্রয়ারটি পড়ে আছে।

ড্রয়ার এবং আলমারিতে থাকা স্বর্ণালঙ্কার, গুরুত্বপূর্ণ দলিলাদি এবং নগদ টাকা নেই। কিন্তু ঘরের বারান্দা অংশের কলাপসিবল গেইটের তালা ঠিকভাবে লাগানো ছিল।

এসময় নগদ ২৭ হাজার টাকা, প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার স্বর্ণালঙ্কার, ১ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকার দুটি মোবাইল এবং জাতীয় পরিচয়পত্র, ব্যংক চেক, জীবন বীমা বই, ড্রাইভিং লাইসেন্সসহ গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র চুরি হয় বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়।

এ প্রসঙ্গে জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, ‘আমি ১ টার দিকে ঘুমাতে যাই এবং ৪ টার দিকে উঠে আলমারি এবং বারান্দার দরজা খোলা দেখি। অথচ মূল গেইট তালাবদ্ধই ছিল। এতো কম সময়ে এতোকিছু চুরি হওয়া রহস্যজনক বিষয়। কারণ আমরা তালা লাগানোই দেখেছি গেইটে। থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

এছাড়া নিরাপত্তা চেয়ে তিনি থানায় সাধারণ ডায়েরি করবেন বলে জানান।

কুমিল্লার কোতয়ালী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আনোয়ারুল হক বলেন, “আমরা অভিযোগ পেয়েছি। আমাদের অফিসার বাড়িতে গিয়েছে। যা যা করা দরকার আমরা করতেছি। বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।”

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *