শিক্ষার্থীদের সাথে ইবি প্রক্টরের দুর্ব্যবহার, আন্দোলনে শিক্ষার্থীরা

ইবি টুডেঃ ছুটির দিনে বাস সংকট নিয়ে শিক্ষার্থীদের সাথে দুর্ব্যবহার করার অভিযোগ উঠেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বম্র্মনের বিরুদ্ধে। তার বিরুদ্ধে প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীদের সাথে উগ্র আচরনের অভিযোগ রয়েছে বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার বাস সংকট নিয়েও শিক্ষার্থীদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন তিনি। পরে দুবর্যবহারকারী প্রক্টরের পদত্যাগ দাবিতে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে আন্দোলন করে শিক্ষার্থীরা।

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থী সূত্রে, বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা৪৫ মিনিটে নির্ধারিত ঝিনাইদহ রুটের একটি বাস ক্যাম্পাসে আসে। এসময় শিক্ষার্থীরা ঐ বাসে উঠতে গেলে চালক তাদের বাঁধা দেয়। এসময় গাড়ির চালকের সাথে তর্কবিতর্কে লিপ্ত হয় তারা। প্রায় ১ঘণ্টা পর্যন্ত তারা গাড়িটি আটকে রাখে। এসময় দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক পরেশ চন্দ্র বম্র্মন ঘটনাস্থলে এসে শিক্ষার্থীদের সাথে বাজে ব্যবহার করেছেন বলে অভিযোগ করেছে শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, প্রক্টর (দায়িত্বপ্রাপ্ত) স্যার যখন গাড়িতে আসছিলেন তখন তার মুখে সিগারেট ধরানো ছিলো। এর পর যখন তিনি আমাদের সাথে কথা বলছিলেন তখনও তার হাতে সিগারেট ছিলো। তিনি কথা বলছিলেন আর বার বার সিগারেট টানছিলেন। একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা ও প্রক্টর হয়ে কেমন করে শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলার সময় ধুমপান করেন? সেটা আমাদের বোধগম্য নয়।

তারা অভিযোগ করে আরও বলেন, তিনি শিক্ষার্থীদের সাথে খুব বাজে আচরণ করেন। তার আচরণে এক ছাত্রী কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। পরে ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি শিক্ষার্থীদের গাড়ি থেকে নামিয়ে দেন। পরে গাড়িটি ঝিনাইদহে পাঠিয়ে দেন।ওই সময়ে বাসে মাত্র একজন কর্মকর্তা ও দুইজন শিক্ষার্থী ছিলেন।

পরে আমরা এ বিষয়ে ভিসির সাথে সাক্ষাত করতে চাইলে প্রক্টর স্যার আমাদেরকে বলেন, ভিসি স্যার আমাদের সাথে দেখা করবেন না। পরে ৪ সদস্যের প্রতিনিধিদল উপাচার্যের সাথে সাক্ষাত করে বিষয়টি জানালে তিনি আমাদের জন্য একটি বাসের ব্যবস্থা করে দেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন প্রশাসক প্রফেসর ড. রেজওয়ানুল ইসলাম বলেন, “ছুটির দিনে মূলত শিক্ষার্থীদের জন্য কোন বাস দেওয়া হয়না। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বাজার ট্রিপের জন্য দু’টি বাস বরাদ্ধ থাকে। যেহেতু শিক্ষার্থীদের বাস থাকে না তাই স্টাফদের বলা রয়েছে যাতে বাসে উঠতে শিক্ষার্থীদের বাঁধা না দেয়। বৃহস্পতিবার ভাড়ায় চালিত বাস না থাকায় একটি বাস দেওয়া হয়েছে’।

এ বিষয়ে অরিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক ড. পরেশ চন্দ্র বম্র্মন সাংবাদিকদের বলেন, ‘ ছুটির দিনে শিক্ষার্থীদের কোন বাস নেই এই বিষয়টি পরিবহন প্রশাসক আমাকে জানায়। পরে শিক্ষার্থীদের বাস থেকে নেমে যেতে বলি। এসময় শিক্ষার্থীরা আমার সাথে খারাপ আচরন করে।’

দ্য ক্যাম্পাস টুডে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ

Leave a Comment