শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৩২ অপরাহ্ন

পদোন্নতি নিশ্চিতে ব্যর্থ হলে কঠোর কর্মসূচির হুশিয়ারি বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষক সমিতি’র

  • আপডেট টাইম মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০, ৬.৩৬ পিএম
অনলাইন ক্লাসের উপস্থিতি গণনা নিয়ে শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ

 

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি

ডিসেম্বরের মধ্যে শিক্ষক আপগ্রেডেশন নীতিমালা সংশােধন করে প্রাপ্যতার তারিখ (Due Date) থেকে আর্থিক সুবিধাসহ শিক্ষকদের পদোন্নতি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হলে কঠোর কর্মসূচী গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি।
গত সোমবার(২৩ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক লাউঞ্জ ও জুম মিটিং প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত শিক্ষক সমিতির ২য় সভায় এ কথা জানান তারা৷এসময় অনলাইনে ও সরাসরি বিশ্ববিদ্যালয়ের মােট ১৬০ জন শিক্ষক অংশগ্রহন করেন।

বিজ্ঞাপন

সভায় পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত, পবিত্র গীতা পাঠ এবং জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নিরবতা পালনের মধ্যে দিয়ে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সাধারণ সভা শুরু হয়।

উক্ত সভায় শিক্ষকদের অনলাইন ক্লাস আরাে ফলপ্রসু করতে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ের মত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মােবাইল ইন্টারনেট ডেটা প্রদানের ব্যবস্থা করতে প্রশাসনের প্রতি জোর অনুরােধ ও প্রতি বিভাগে অনলাইন ক্লাসের আধুনিক সরঞ্জাম সরবরাহ করার দাবি সহ উল্লেখযােগ্য সংখ্যক সম্মানিত শিক্ষকদের পদোন্নতির জট নিরসন, আর্থিক ও পেশাগত ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ শিক্ষকদের ক্ষতি প্রশমনে করনীয় নির্ধারন, শিক্ষকদের পারিতােষিক হার যুগােপযােগীকরণ, শিক্ষক ক্লাবের পরিচালনা বিষয়ক সিদ্ধান্ত গ্রহণ, শিক্ষকদের আবাসন এবং আমলাতান্ত্রিক নানান জটিলতাসহ বর্তমান শিক্ষক সমিতির মেয়াদ শেষে নতুন শিক্ষক সমিতি গঠনের লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশন গঠন সংক্রান্ত বিষয়ে আলােচনা হয়।

বিজ্ঞাপন

এছাড়া দুই বছর ধরে আপগ্রেডেশন এবং রিজেন্ট বাের্ড না হওয়ায় প্রায় ১০০ জনের ও অধিক শিক্ষকদের আপগ্রেডেশন সর্বনিম্ন ৮ মাস থেকে সর্বোচ্চ প্রায় ৩ বছর যাবত আটকে থাকায় প্রায় ১৮০ জন শিক্ষক ভীষণভাবে আর্থিক, সামাজিক, মানসিক এবং পেশাগতভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন এ মর্মে সর্বোসম্মতিক্রমে এই ক্ষতি প্রশমনে প্রশাসন আগামি ২০ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখের ডিসেম্বরের মধ্যে শিক্ষক আপগ্রেডেশন নীতিমালা সংশােধন করে প্রাপ্যতার তারিখ (Due Date) থেকে আর্থিক সুবিধাসহ এসকল শিক্ষকদের পদোন্নতি নিশ্চিত করতে ব্যর্থ হলে কঠোর কর্মসূচী গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেয়ার আলোচনা করা হয়।

সভায় বক্তারা আরাে বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধুর নামে নামাঙ্কিত এবং তারই পুণ্যভূমিতে অবস্থিত অথচ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকেরা সবচেয়ে বেশি অবহেলিত ও বঞ্চিত এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পারিতােষিকের হার বাংলাদেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের তুলনায় সর্বোনিম্ন দীর্ঘ ০৯ বছরেও বৃদ্ধি করা হয়নি যা খুবই হতাশাজনক৷

বিজ্ঞাপন

আরও বলেন, সবশেষে ইতিহাস এবং ইটিই বিভাগের সমস্যা দ্রুত নিরসন করার তাগিদ দেয়া সহ শিক্ষক ক্লাব পরিচালনার জন্য এসিসিই বিভাগের সভাপতি ও সহকারী অধ্যাপক ড. মােঃ কামরুজ্জামানকে সভাপতি এবং একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মােঃ সােলাইমান হােসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে একটি কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

একই সাথে বিএমবি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মাহবুব হাসান কে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি নির্বাচন কমিশন গঠন করা হয়, যার অন্য দুইজন সদস্যরা হলেন সমাজবিজ্ঞান বিভাগের সভাপতি ও সহকারী অধ্যাপক মােঃ মজনুর রশীদ এবং বিলওয়াবস এর প্রভাষক জনাব নুসরত জাহান।

বিজ্ঞাপন

প্রসঙ্গত শিক্ষক সমিতির কার্যকরী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মােঃ রকিবুল ইসলাম এর সঞ্চালনায় ও শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. হাসিবুর রহমান এর সভাপতিত্বে উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

The Campus Today YouTube Channel

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_creativenews_II7
All rights reserved © 2019-20 The Campus Today